”যাঁরা ধর্ম নিয়ে খেলা করে, বাংলায় তাঁদের খেলা শেষ হবে”, বিজেপিকে কটাক্ষ দেবের

0

কলকাতা: শিয়রে একুশের নির্বাচন। রাজ্যে চলছে দল বদলের পালা। ইতিমধ্যে আবার জোরকদমে প্রস্তুতিও শুরু করে দিয়েছে রাজনৈতিক দলগুলি। কিন্তু ঘাটালের সাংসদ দেবকে দীর্ঘদিন দেখা যায়নি প্রচারে দলবদলের জল্পনা যা উসকে দিয়েছিল। সমস্ত জল্পনার অবসান ঘটিয়ে খোদ দেব এবার সামিল হলেন নির্বাচনী প্রচারে। বুধবার পশ্চিম মেদিনীপুরের দাঁতন বিধানসভার তুরকা গ্রামে তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী বিক্রমচন্দ্র প্রধানের হয়ে নির্বাচনী প্রচারে যান দীপক অধিকারী তথা অভিনেতা দেব।

উপস্থিত ছিলেন সৌগত রায়। রোড শো দিয়ে শুরু হয় নির্বাচনী প্রচার। প্রচারে গিয়ে দেব বলেন, ”বাংলায় ধর্ম নিয়ে রাজনীতির কোনও জায়গা নেই। বাংলায় শান্তির খেলা হবে।” তিনি আরও বলেন, ”মানুষকে আর বোকা বানানো যাবে না। যে দলের নেতা-নেত্রী মানুষের হয়ে কাজ করবেন তাঁকেই ভোট দেওয়া উচিত।” তাঁর কথায়, ”আজ সোনার বাংলা গড়ার শ্লোগান ভালো চলছে। সোনার বাংলা হলে আমাদের প্রত্যেকের লাভ। কিন্তু আমার প্রশ্ন, যাঁরা আজকে সোনার বাংলা গড়বেন বলছেন, ২০১৪ সালে তাঁরাই বলেছিলেন সোনার চিড়িয়া বানানোর কথা।”

এখানেই শেষ নয়, এদিন কর্মসংস্থানের প্রতিশ্রুতি নিয়েও বিজেপিকে কটাক্ষ করেন তিনি। বিজেপির কর্মসংস্থান গড়ার স্লোগান প্রসঙ্গে দেবের কটাক্ষ, ”সাত বছর হয়ে গেল দেশের অর্থনীতির অবস্থা গত ৭০ বছরের থেকেও খারাপ। এরাই আবার বলছেন সোনার বাংলা গড়বেন? বিজেপি বছরে দুই কোটি চাকরি দেওয়ার কথা বলেছিল। আমিও চাই চাকরি হোক। গুগল সার্চ করে দেখে নিন, দেশের বেকারত্বের হার গত ৫০ বছরের থেকেও খারাপ হয়েছে। নির্বাচনের আগে চাকরির দেওয়ার মিথ্যে প্রতিশ্রুতি দেওয়া হচ্ছে। বাংলার মানুষ শান্তিতে থাকতে চান। মানুষের জন্য উন্নয়ন হোক, এইটা নিয়েই খেলা হবে।”