মোদী ও তাঁর দলকে ‘সাপের’ সঙ্গে তুলনা মুখ্যমন্ত্রীর

0

পশ্চিম মেদিনীপুর: হাইভোল্টেজ একুশের নির্বাচন। আসন দখলের লড়াই চলছে সমানে-সমানে। রাজ্য রাজনীতিতে জোর তোলপাড় হয়েছে মুখ্যমন্ত্রী আহত হওয়ায়। তাই এবার ভাঙা পায়েই নির্বাচনী প্রচারে ঝড় তুলছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিকে আবার প্রচারের জন্য পুরুলিয়ায় সভা করছেন প্রধানমন্ত্রী। নবান্ন দখলের লড়াইয়ে বৃহস্পতিবার জঙ্গলমহলের একপ্রান্ত পুরুলিয়ায় যখন মমতা ও তাঁর দলকে তুলোধনা করছেন নরেন্দ্র মোদী, তখন পশ্চিম মেদিনীপুরের গড়বেতা থেকে মোদী ও তাঁর দলকে ‘সাপের’ সঙ্গে তুলনা করছেন মমতা।

মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘ঘরের দুয়ারে সাপ লুকিয়ে থাকে, বাঘ লুকিয়ে থাকে। সাপকে ঢুকতে দেওয়া যাবে না, বাঘকেও ঢুকতে দেওয়া যাবে না।’ পাশাপাশি, আমফান প্রসঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘আমফানের সময় কোথায় ছিল বিজেপি, কোথায় ছিলেন নরেন্দ্র মোদী, ভোটের সময়ই টাকা নিয়ে বেরিয়ে পড়েন।’ জনতার উদ্দেশে তাঁর প্রতিশ্রুতি, ‘আমাদের সরকার থাকলে বিনা পয়সায় রেশন পাবেন আপনারা। ভোট মিটে যাওয়ার পর বাড়ি বাড়ি রেশন পৌঁছে দেব। আমরা দুয়ারে সরকার। দুয়ারে রেশন পৌঁছে দেব, কোনও চিন্তা করবেন না।’

অন্যদিকে বাংলার মহিলা ভোটারদের বিপুল সংখ্যাকে টার্গেট করেই এগোচ্ছেন তৃণমূল সুপ্রিমো। প্রতিটি সভায় তুলে ধরেছেন বিজেপির নারী ‘বিরোধী’ রূপ। গড়বেতার সভা থেকেও তিনি বলেন, ‘মা-বোনেরা আপনাদের বলব, আপনারা ঘরেও কাজ করেন, বাইরের কাজও করেন। লুঠেরা বাহিনী এলে হাতা-খুন্তি নিয়ে তেড়ে যাবেন। তবে, আমরা বদলার বদলে বদলা চাই না, আমার দাঙ্গা চাই না। কিন্তু নিজেদের সবকিছু লুঠ করতে দেবেন না।’ সবশেষে বলাই যায়, একুশের বিধানসভা নির্বাচনে তিনি যে জিতছেনই, সেই আত্মবিশ্বাস ধরা পড়েছে তাঁর গলায়। গড়বেতাবাসীর উদ্দেশে তার বক্তব্য, ‘এখন ভাঙা পা নিয়ে এসেছি, ২রা মে পর, আমার পা ভালো থাকলে আবার আসব। আপনাদের পাশে কেউ থাকবে না। একমাত্র আমি থাকব।’