অর্থের বিনিময়ে প্রার্থী পদের টিকিট বিক্রি করেছেন শুভেন্দু, অভিযোগ বিজেপিরই একাংশের

0

মালদাহ: ভোটের আবহে অর্থের বিনিময়ে প্রার্থী পদের টিকিট বিক্রির মতো গুরুতর অভিযোগ উঠল তৃণমূলের দলবদলু নেতা শুভেন্দু অধিকারীর বিরুদ্ধে। তিনিই নাকি অর্থের বিনিময়ে সদ্য তৃণমূল থেকে আসা নেতা চন্দ্র মন্ডলকে মালদা মানিকচকের টিকিট পাইয়ে দিয়েছেন। এমনটাই অভিযোগ স্থানীয় বিজেপি কর্মীদের। সেই নিয়ে ক্ষোভে ফেটে পড়েছে অঞ্চলের আদি বিজেপিরা। কারণ ওই কেন্দ্রের প্রার্থী পদের দাবিদার ছিলেন অনিল মন্ডল।

কিন্তু কিছুদিন আগেই তৃণমূল ছেড়ে বিজেপি’তে নাম লেখান গৌড়চন্দ্র মণ্ডল। ঠিক তারপরই তাকে প্রার্থী পদের টিকিট দেওয়া হয়। তাই নিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করেন বিজেপির পুরোনো কর্মী, সমর্থকরা। ক্ষোভে ফেটে পড়েন বিজেপি নেতা অনিল মণ্ডল ও তাঁর অনুগামীরা। বৃহস্পতিবার রাতে মানিকচকে দলীয় কার্যালয়ের সামনে বিক্ষোভ প্রদর্শন করে। ভাঙচুর করা হয় অফিসের সমস্ত আসবাবপত্র। আগুনও জ্বালিয়ে দেওয়া হয় তাতে। রাজ্য ও কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের পোস্টার ব্যানার ছিঁড়ে ফেলা হয়। অর্থের বিনিময়ে টিকিট দেওয়া হয়েছে, এমনও অভিযোগ তোলেন তাঁরা।

বিজেপির নেতা অনিল মণ্ডলের অভিযোগ, “আমরা দীর্ঘ দিন ধরে বিজেপি করে এসেছি কিন্তু মানিকচক বিধানসভার বিজেপির প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে সদ্য তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে আসা জেলা পরিষদের সভাধিপতি গৌড় চন্দ্র মণ্ডলকে। আমরা তা মেনে নিতে পারছি না। তার আরও অভিযোগ, জেলা নেতৃত্ব বিপুল পরিমাণ অর্থের বিনিময়ে প্রার্থীপদ বিক্রি করেছে।” একই অভিযোগ করেছেন স্থানীয় বিজেপি নেতা সঞ্জয় ঘোষও।