ক্ষোভ উগড়ে দেওয়ার পরেই গাইঘাটার পদ্ম-প্রার্থী করা হলো ঠাকুরবাড়ির সুব্রত ঠাকুরকে: স্বস্তি ফিরলো মতুয়া মহলে

0

কলকাতা: একুশের বিধানসভা ভোটের প্রার্থী তালিকায় মতুয়া সম্প্রদায়ের নাম না থাকায় সাংবাদিক সম্মেলন করে বিজেপি এবং তৃণমূল উভয় দলের বিরুদ্ধেই গত রবিবার কার্যত ক্ষোভ উগরে দিয়েছিলেন বিজেপি সাংসদ শান্তনু ঠাকুরের বাবা মঞ্জুলকৃষ্ণ ঠাকুর| এই রাজনৈতিক টানাপোড়েনের মধ্যেই মঙ্গলবার বিজেপির তরফ থেকে গাইঘাটার প্রার্থী হিসাবে ঠাকুরবাড়ির সন্তান সুব্রত ঠাকুরকে পদ্ম প্রার্থী হিসাবে মনোনীত করা হলো| প্রার্থী তালিকায় সুব্রতর নাম থাকায় বিজেপি কিছুটা হলেও স্বস্তিতে রয়েছে, অপরদিকে তৃণমূলের তরফ থেকে মতুয়াদের প্রার্থী না করে বিজেপিকে আরও খানিকটা চাপমুক্ত করেছে| মতুয়াদের মধ্যেকার জমে থাকা ক্ষোভের অবসান ঘটাতে পেরেছে গেরুয়া শিবির, যা ২০২১এর ভোটবাক্সে জায়গা করে নেবে|

একুশের নির্বাচনে মতুয়াদের পক্ষ থেকে মমতাবালা ঠাকুরকে প্রার্থী করার জন্য তৃণমূল সরকারের কাছে আবেদন রাখা হয়েছিল, কিন্তু রাজ্য সরকার সেই আবেদন রাখেনি| বিধানসভা ভোটের প্রার্থী তালিকা থেকে বাদ দিয়েছেন মতুয়া সম্প্রদায়কে, যার জন্য ক্ষোভের মুখে পড়তে হয়েছে তৃণমূল সরকারকে| অন্যদিকে বিজেপির প্রার্থী তালিকায় সুব্রত ঠাকুরের নাম প্রকাশিত হয়েছে| এমনিতেও গত লোকসভা ভোটের নিরিখে বিজেপি গাইঘাটা থেকে ৩৫ হাজার ভোটে এগিয়ে ছিল,আর ঠিক একমাস পরই গাইঘাটায় বিধানসভা নির্বাচন বিজেপির প্রার্থী তালিকায় সুব্রতর নাম থাকায় ভোটবাক্সে বিজেপি এগিয়ে থাকবে বলেই মনে করছে রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা|

লোকসভা নির্বাচনে বিজেপিকে তৃণমূলের থেকে এগিয়ে রেখেছিলো এই মতুয়া সম্প্রদায়ই, সুতরাং ভোটবাক্স যাতে ভরাট হয় সেই জন্যই সুব্রতকে প্রার্থীর তালিকায় রেখেছে গেরুয়া শিবির| মূলত স্ট্রাইকরেট ধরে রাখতেই বিজেপির এই সিদ্ধান্ত| বনগাঁ ও রানাঘাট এলাকার ১৪ টি বিধানসভা আসনের মধ্যে ১২ টি তে এগিয়ে রয়েছে কেন্দ্র সরকার, তাই জেতা আসনে ঝুঁকি না নিয়েই প্রার্থী করলো সুব্রত ঠাকুরকে|

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here