“নির্বাচনের পর বিহার, উত্তর প্রদেশ যেখানেই পালাও, কান ধরে টেনে আনবো”, গোঘাটের সভা থেকে শুভেন্দুকে হুঁশিয়ারি মমতার

0

গোঘাট, হুগলীঃ পায়ের চোট এখনও সারেনি। প্লাস্টার করা অবস্থাতেই জোরকদমে নির্বাচনী প্রচার চালাচ্ছেন তৃণমূল নেত্রী। হুইলচেয়ারে করেই মঙ্গলবার রোড-শোও করছেন নন্দীগ্রামে। রাজ্যে বৃহস্পতিবার দ্বিতীয় দফার নির্বাচন। তার আগে বুধবার গোঘাটে জনসভা করলেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সভা থেকেই নাম না করেই শুভেন্দু অধিকারীকে তীব্র আক্রমণ করলেন মুখ্যমন্ত্রী।

বুধবার গোঘাটে জনসভা থেকে একাধিক কর্মসংস্থানের প্রতিশ্রুতি দিলেন জনগণকে। সাধারণ মানুষকে আশ্বাস দিয়ে বলেন, “চাকরি দেব, কর্মসংস্থান হবে, কন্যাশ্রী, যুবশ্রী, সবুজ সাথী, স্বাস্থ্যসাথী সব পাবেন, শুধু অনুরোধ করব কেউ বিজেপিকে ভোট দেবেন না। সিপিএম-এর হার্মাদ আর তৃণমূলের গদ্দাররা এখন বিজেপি-র প্রার্থী। ওদের নিজেদের কিছু নেই।” পাশাপাশি গোঘাটের সভা থেকে শুভেন্দু অধিকারীদের সতর্ক করেন মুখ্যমন্ত্রী। নাম না করেই সরাসরি শুভেন্দু অধিকারীকে আক্রমণ করলেন। তিনি বলেন, “নির্বাচনের পর বিহার, উত্তর প্রদেশ যেখানেই পালাও, কান ধরে টেনে আনবো।” তিনি আরও বলেন, “খাইয়ে পড়িয়ে মানুষ করেছি, দুধ, কলা দিয়ে কালসাপ পুষেছি।”

পাশাপাশি, শুভেন্দু অধিকারীর বিরুদ্ধে তৃণমূল কর্মীদের উপর হামলার অভিযোগ করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বলেন, “তুমিও লড়বে আর আমিও লড়ব। আমার কর্মীদের উপর হামলা কেন? আমার কর্মীদের মারধর করা হচ্ছে। আমার গাড়িতে আক্রমণ করা হচ্ছে।” এরপরই তৃণমূলনেত্রী এক প্রকার হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, “শুধু ভোট বলে চেপে যাচ্ছি, নাহলে আমিও দেখে নিতাম, কে কত বড় নেতা। কার কত ক্ষমতা।”

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here