অগ্নিগর্ভ পরিস্থিতি নন্দীগ্রামে, ছাপ্পা ভোটের অভিযোগ নিয়ে আদালতে দ্বারস্থ তৃণমূল কংগ্রেস

0

নন্দীগ্রামঃ মুখ্যমন্ত্রীর সামনে ব্যাপক অশান্তি নন্দীগ্রামে। অগ্নিগর্ভ পরিস্থিতি সেখানে। মুখ্যমন্ত্রী নিজে সেখানে ছাপ্পা ভোটের অভিযোগ তুলেছেন। তাই নিয়েই এবার আদালতে দ্বারস্থ হবে তৃণমূল কংগ্রেস৷ এ দিন নন্দীগ্রামের বয়ালের একটি বুথে গিয়ে এমনই অভিযোগ করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ তাঁর দাবি, সকাল থেকে ৬৩টি অভিযোগ তাঁরা নির্বাচন কমিশনকে জানিয়েছেন৷ কিন্তু কোনওক্ষেত্রেই নির্বাচন কমিশন কোনও ব্যবস্থা নেয়নি বলে অভিযোগ মুখ্যমন্ত্রীর৷

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘এখানে ৮০ শতাংশ ছাপ্পা ভোট পড়ে গিয়েছে৷ আমরা কোর্টে যাব, লিগাল অ্যাকশন নিচ্ছে৷ কেন্দ্রীয় বাহিনী বিজেপি-র কথায় কাজ করছে৷ ওরা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের নির্দেশে কাজ করছে৷ বাইরে সব হিন্দিতে কথা বলছে৷ এরা কেউ বাংলার নয়, বাইরের লোক৷’

মুখ্যমন্ত্রী অভিযোগ তোলেন, বাইরে থেকে প্রচুর লোক ঢোকানো হয়েছে ছাপ্পা ভোট দেওয়ার জন্য৷ একই সঙ্গে অবশ্য দলীয় কর্মী এবং সমর্থকদের আশ্বস্ত করে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘অত ভয় পাওয়ার কিছু নেই৷’

এ দিন সকাল থেকে নন্দীগ্রামের রেয়াপাড়ার ভাড়া বাড়িতেই ছিলেন মুখ্যমন্ত্রী৷ বয়ালে তৃণমূল সমর্থকরা ভোট দিতে পারছে না বলে অভিযোগ ওঠে৷ খবর পেয়ে বেলা একটার পর বেরিয়ে বয়ালের ৭ নম্বর বুথে পৌঁছন মুখ্যমন্ত্রী৷ তখনই সেখানে তীব্র উত্তেজনা তৈরি হয়৷ মমতার সামনেই ইট নিয়ে পরস্পরের দিকে তেড়ে যায়৷ মুখ্যমন্ত্রীর উপস্থিতিতেই মাঠের দু’ প্রান্তে বাঁশ, লাঠি নিয়ে জড়ো হয়ে যান তৃণমূল এবং বিজেপি-র সমর্থকরা৷ বুথের একশো মিটারের মধ্যে কেন্দ্রীয় বাহিনীকেও দেখা যায়নি বলে অভিযোগ৷ কোনও ক্রমে পরিস্থিতি সামাল দেয় পুলিশ৷

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here