কোচবিহারে দিলীপ ঘোষের ওপরে হামলার ঘটনায় কড়া কমিশন, ২৪ ঘন্টার মধ্যে রিপোর্ট তলব, গ্রেফতার ১৬

0

কোচবিহার: শীতলকুচিতে দিলীপ ঘোষের কনভয়ে হামলার ঘটনায় কড়া নির্বাচন কমিশন। ইতিমধ্যেই ঘটনায় জড়িত সন্দেহে কমপক্ষে ১৬ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এই ঘটনার রিপোর্ট তলব করা হয়েছে প্রশাসনের তরফ থেকে। জেলা প্রশাসনকে ২৪ ঘন্টার মধ্যে রিপোর্ট দিতে বলা হয়েছে। যদিও এই হামলার ঘটনা নিয়ে দ্বিমত রয়েছেন তৃণমূলের অন্দরে।

বুধবার শীতলকুচিতে সভা করেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। সেই সভা সেরে বেরনোর সময় দিলীপের কনভয় লক্ষ্য করে বোমাবাজি করা হয় বলে অভিযোগ। বিজেপির রাজ্য সভাপতির দাবি, যে মাঠে তাঁর সভা হয়েছিল, সেখানেই আগ্নেয়াস্ত্র-সহ তৃণমূল আশ্রিত কিছু দুষ্কৃতী তাঁর উপর হামলা চালায়। তাঁর কনভয় লক্ষ্য করে বোমাবাজি করা হয়। দিলীপের অভিযোগ, তাঁর গাড়িতেও দুটি বোমা পড়েছে। শুধু তাই নয়, আধলা ইট মেরে তাঁর গাড়ির কাঁচ ভাঙা হয়েছে। তাঁর নিজের গায়েও ইটের আঘাত লেগেছে। কনভয়ের অন্য গাড়িতেও বোমা পড়েছে বলেও দাবি করেন রাজ্য বিজেপির সভাপতি। ঘটনাকে কেন্দ্র করে রাতেই তোলপাড় শুরু হয়। এদিন পরিস্থিতি এমন পর্যায় পৌঁছায় যে গাড়ির মধ্যেই কোনওভাবে হেলমেট পড়ে প্রাণ বাঁচান বিজেপির রাজ্য সভাপতি। তিনি গাড়ি থেকে নেমে একটি বাড়িতে ঢুকে যান। জানা যাচ্ছে, এদিনের হামলায় বাঁ হাতে চোট পেয়েছেন দিলীপবাবু।

এর আগেও একাধিকবার হামলার মুখে পড়েছেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। তবে নির্বাচনের মুখে হামলার ঘটনা সত্যিই অবাক করে দিচ্ছে। জানা গিয়েছে, শীতলকুচি পঞ্চায়েত সমিতির মাঠে সভা ছিল। সেই সভাতেই এই হামলা হয়। সেই সময়ে বেশ কয়েকজন বিজেপি কর্মীও আহত হয়েছেন বলে দাবি। গোটা ঘটনায় শুরু হয়েছে রাজনৈতিক তরজা। বিজেপির অভিযোগের তির তৃণমূলের দিকে। তবে রাজ্য সভাপতি গাড়িতে হেলমেট পরে সুরক্ষা করছেন এমন দৃশ্য দেখা যায়নি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here