প্রেমদিবসে কোয়ার্টারের টিকিট হাসিল করল বাংলা

পাটিয়ালা: পরপর দুই ম্যাচে দুটি দুর্ধর্ষ জয়, যেন এই দুই ম্যাচই বাংলার রঞ্জি মরশুমের সারাংশ বুঝিয়ে দিয়েছে। শুক্রবার ভ্যালেন্টাইন্স ডে-তে পাঞ্জাবকে তাদের ঘরের মাঠে হারিয়ে কোয়ার্টার ফাইনালের যোগ্যতা অর্জন করল বাংলা।

পাটিয়ালার ধ্রুভে পান্ডোভে স্টেডিয়ামে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে চূড়ান্ত ব্যাটিং বিপর্যয়ের সম্মুখীন হয়েছিল বাংলা। রাজস্থানের বিরুদ্ধে খারাপ পারফর্মেন্সের পর পাঞ্জাবের বিরুদ্ধে দুর্দান্ত ৭৩ রান করে বাংলাকে লজ্জার হাত থেকে বাঁচান মনোজ তিওয়ারি। মাত্র ১৩৮ রানেই গুটিয়ে যায় বাংলা। পাঞ্জাবের হয়ে ৬ উইকেট নেন বাঁ হাতি স্পিনার বিনয় চৌধুরী।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে বাংলার ব্যাটিং বিপর্যয়ের খুব বেশি সুবিধা করতে পারেনি পাঞ্জাব। শাহবাজ আহমেদ (৭-৫৭)-এর স্পিনের ভেলকিতে মাত্র ১৫১ রানে অল আউট হয়ে যায় পাঞ্জাব। শাহবাজকে যোগ্য সঙ্গত দেন আকাশ দীপ (৩-৩০)।

মাত্র ১৩ রানে পিছিয়ে থাকার দরুন নতুন করে অক্সিজেন পায় বাংলার ব্যাটসম্যানরা। কিন্তু শুরুতে আবারও ধস নামে বাংলার ব্যাটিংয়ে। মাত্র ২১ রানে তিনটি উইকেট পড়ে যায়। কিন্তু অর্নব নন্দী (৫১) ও মনোজ তিওয়ারি (৬৫) এর অর্ধশতরানের ইনিংস বাংলাকে ম্যাচে ফেরায়। এরপর শ্রীবৎস গোস্বামী (২৪) ও অনুষ্ঠুপ মজুমদার (২৬)-এর ধৈর্যশীল ইনিংস বাংলাকে ২০২ রান অবধি নিয়ে যায়।

চতুর্থ ইনিংসে ১৯০ রান তাড়া করা অত্যন্ত কঠিন ছিল পাটিয়ালার ঐ পিচে। আর ঠিক তারই সুবিধা নিয়েছে বাংলার বোলাররা। ৩৭ রানের পাঞ্জাবের পাঁচ ব্যাটসম্যানকে আউট করে একেবারে জয়ের দোরগোড়ায় পৌঁছে গিয়েছিল বাংলা। কিন্তু রমনদীপ সিং (৬৯) পাঞ্জাবকে ম্যাচের মধ্যে রাখে। অনমোল মালহোত্রা (১৭)-এর সাথে ৬৩ রানের পার্টনারশিপ ধীরে ধীরে পাঞ্জাবকে জয়ের কাছে এনে দিয়েছিল। কিন্তু মালহোত্রা আউট হওয়ার পর ফের ধস নামে পাঞ্জাব ব্যাটিংয়ে। মাত্র ১৪১ রানে গুটিয়ে যায় পাঞ্জাব। এই ইনিংসে চার উইকেট নেন শাহবাজ ও দুই উইকেট নেন আকাশ দীপ।

৪৮ রানে ম্যাচ জিতে রঞ্জি ট্রফির কোয়ার্টার ফাইনালে উঠল বাংলা। ম্যান অফ দ্য ম্যাচ নির্বাচিত হন মনোজ তিওয়ারি। কোয়ার্টারে তারা মুখোমুখি হতে পারে উড়িষ্যা কিংবা গোয়ার সাথে।