ফেডারেশনের বর্ষসেরা ফুটবলার গুরপ্রীত সিং সান্ধু এবং সঞ্জু বাগ, গ্রাসরুটে ভারতসেরা বাংলা

0

নয়াদিল্লি : ২০১৯-২০ মরশুমে অল ইন্ডিয়া ফুটবল ফেডারেশনের বর্ষসেরা পুরুষ ফুটবলার হিসেবে নির্বাচিত হলেন ভারতের ‘গ্রেট ওয়াল’ গোলকিপার গুরপ্রীত সিং সান্ধু। এছাড়া বর্ষসেরা মহিলা ফুটবলার হিসেবে বিবেচিত হলেন ভারতীয় দলের মিডফিল্ডার সঞ্জু বাগ। আইএসএল ও আইলিগ কোচেদের বিচারে এই দুই ফুটবলার পেলেন এই পুরষ্কার।

এই প্রথমবার গুরপ্রীত এই সম্মান পেলেন। গত বছর অর্জুন পুরষ্কার পাওয়ার পর এবার এই বিশেষ সম্মান পেলেন এই পাঞ্জাব তনয়। সুব্রত পালের (২০০৯) পর দ্বিতীয় গোলকিপার হিসেবে বর্ষসেরা ফুটবলার হিসেবে সম্মানিত হলেন গুরপ্রীত। বেঙ্গালুরু এফসি এবং ভারতের জাতীয় দলের শেষ প্রহরী হিসেবে দুর্দান্ত দায়িত্ব সামলেছেন গুরপ্রীত।

সম্মানিত হতে পেরে খুশি গুরপ্রীত। তিনি জানান, “আমার সর্বদাই ইচ্ছা ছিল এমন একটি জায়গায় পৌছানোর এবং এই পুরষ্কারের দিকেই আমার নজর ছিল। এআইএফএফ এবং যারা আমায় সাহায্য ও সমর্থন করেছে এই জায়গায় আসার জন্য, তাদের জানাই অসংখ্য ধন্যবাদ। এশিয়ান চ্যাম্পিয়ন কাতারের বিরুদ্ধে তাদের ঘরে মহামূল্যবান ড্র, গত আইএসএল-এ ১১টি ক্লিনশিট এবং গোল্ডেন গ্লাভস পুরষ্কার জেতা কখনই হত না আমার দল আমার পাশে না থাকলে।”

এছাড়া বর্ষসেরা উঠতি খেলোয়াড় বিবেচিত হয়েছেন ভারতীয় দল এবং চেন্নাইন এফসির মিডফিল্ডার অনিরুদ্ধ থাপা।

এদিকে বর্ষসেরা মহিলা ফুটবলার হিসেবে বিবেচিত হয়েছেন মিডফিল্ডার সঞ্জু যাদব বাগ। এই সম্মান পেয়ে তিনি জানিয়েছেন, “ব্যক্তিগত স্তরে, এই সম্মান আমার কাছে অনেক বড় একটি ধাপ। এই পুরষ্কার একটি প্রমাণ গত কয়েক বছরে আমার দীর্ঘ পরিশ্রম আজ সফলতা পেল। আমি ফেডারেশনকে ধন্যবাদ জানাতে চাই যারা আমাদের সুযোগ দিয়ে আমাদের উন্নতির জন্য বাড়িয়ে তুলেছে।”

সবশেষে, ভারতীয় ফুটবলের গ্রাসরুট ডেভেলপমেন্ট প্রোগ্রামে দেশের সেরা নির্বাচিত হয়েছে বাংলার ফুটবল নিয়ামক সংস্থা ইন্ডিয়ান ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন। এই পুরষ্কারটি দেওয়া হয়েছে ই-লাইসেন্স কোর্স ও গোল্ডেন বেবি লিগের উপর নির্ভর করে।

এক নজরে দেখে নেওয়া যাক ২০১৯-২০ মরশুমে ফেডারেশনের বর্ষসেরার পুরষ্কার প্রাপকদের তালিকা –

সেরা পুরুষ ফুটবলার – গুরপ্রীত সিং সান্ধু
সেরা মহিলা ফুটবলার – সঞ্জু যাদব বাগ
সেরা পুরুষ উঠতি ফুটবলার – অনিরুদ্ধ থাপা
সেরা মহিলা উঠতি ফুটবলার – রত্নাবালা দেবী
সেরা সহকারী রেফারি – পি ভাইরামুথু (তামিলনাড়ু)
সেরা রেফারি – এল অজিত কুমার মেইতেই (মনিপুর)
সেরা গ্রাসরুট ডেভেলপমেন্ট প্রোগ্রাম – পশ্চিমবঙ্গ