ভারতীয় ফুটবলের পুনরারম্ভে বুদ্ধিদীপ্ত ফুটবলে চমৎকার জয় ভবানীপুর এফসির

0

ভবানীপুর এফসি – ২ (পঙ্কজ মৌলা, ফিলিপ আদজা)

এফসি বেঙ্গালুরু ইউনাইটেড – ০

কলকাতা : দীর্ঘ সময়ের লকডাউন শেষে আবারও ভারতের মাটিতে শুরু হল খেলাধূলা। ভারতীয় ফুটবলের মক্কা বাংলায় আবারও শুরু হল ফুটবলের জয়গান। আইলিগ দ্বিতীয় ডিভিশনের মূলপর্বের উদ্বোধনী ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছিল ভবানীপুর এফসি এবং এফসি বেঙ্গালুরু ইউনাইটেড। সল্টলেকের বিবেকানন্দ যুবভারতী ক্রীড়াঙ্গনে হওয়া সেই ম্যাচে ২-০ গোলে জয় পায় শঙ্করলাল চক্রবর্তীর ভবানীপুর।

করোনায় আক্রান্ত হওয়ায় দল থেকে ছিটকে গিয়েছিলেন ভবানীপুর এফসির ভরসা আনসুমানা ক্রোমা। কিন্তু তার অভাব বুঝতেই দেননি ঘানার তারকা ফরোয়ার্ড ফিলিপ আদজা। আর এই ম্যাচে নজর কাড়েন ১৮ বছরের তরুণ রাইট উইঙ্গার সুপ্রিয় পন্ডিত। মাত্র ১৮ বছর বয়স হলেও গতি ও শক্তিতে ভরপুর এই ফুটবলার।

শুরুর ১৫ মিনিট আক্রমণাত্মক ছিল বেঙ্গালুরু। ১৫ মিনিটের মাথায় বেঙ্গালুরুর হয়ে ভালো সুযোগ পেয়েও হাতছাড়া করেন মোহনবাগান প্রাক্তনী আজহারউদ্দিন মল্লিক। এরপর দুই দলই বুঝেশুনে বল নিজেদের নিয়ন্ত্রণে রেখে খেলার চেষ্টা করে। কিন্তু প্রথমার্ধের অতিরিক্ত সময়ে গোল পেয়ে যায় ভবানীপুর। ফিলিপ আদজার শট বেঙ্গালুরুর গোলকিপার শ্রীজিত সেভ করলেও রিবাউন্ডে গোল করে দেন পঙ্কজ মৌলা।

দ্বিতীয়ার্ধে বেঙ্গালুরু এফসি কিছুটা চেষ্টা করে সমতা ফিরিয়ে আনার। কিন্তু অতি আগ্রাসী হওয়ায় ডিফেন্স কার্যত ফাঁকা থাকে। আর কাউন্টার অ্যাটাকে তার সুবিধা নেয় ভবানীপুর। ৬০ মিনিটে উড়িষ্যা এফসি থেকে আসা ডিফেন্ডার রানা ঘরামিকে কার্যত নাচিয়ে বক্সের বাইরে থেকে জোরালো শটে নিজের প্রথম ও দলের দ্বিতীয় গোলটি তুলে নেন ফিলিপ আদজা। এরপর গোটা ম্যাচ জুড়ে নিজেদের আধিপত্য বিস্তার করে শঙ্করলাল চক্রবর্তীর ছেলেরা। শেষ অবধি ২-০ গোলের ফলে জয় হাসিল করে নেয় ভবানীপুর। ম্যান অফ দ্য ম্যাচ নির্বাচিত হন ভবানীপুর এফসির পঙ্কজ মৌলা।

এই ম্যাচে অবশ্যই উল্লেখযোগ্য বিষয় হিসেবে থাকবে ভবানীপুর এফসির কোচ শঙ্করলাল চক্রবর্তীর বুদ্ধিদীপ্ত ট্যাকটিক্স। যেভাবে তিনি তার দলকে কমপ্যাক্ট ফুটবল খেলতে নির্দেশ দিয়েছিলেন, তাতে বেশি সু্যোগই গড়তে পারেনি বেঙ্গালুরু ইউনাইটেড। পাশাপাশি প্রথম দিকে ভালো পারফর্ম করলেও দ্বিতীয়ার্ধ থেকে একেবারে জঘন্য ডিফেন্স করেছেন ইস্টবেঙ্গলের টার্গেট রানা ঘরামি, এই বেঙ্গালুরু দলের ক্ষমতা থাকলেও আরও পরিশ্রম করতে হবে তাদের।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here