এটিকে-মোহনবাগানের দুর্ভেদ্য ডিফেন্সে মাত কিবুর স্প্যানিশ টাচ

0

কেরালা ব্লাস্টার্স – ০

এটিকে-মোহনবাগান এফসি – ১ (রয় কৃষ্ণা)

বাম্বোলিম, গোয়া : ম্যাচটি ছিল কার্যত দুই স্প্যানিশ কোচের দুই স্ট্র‍্যাটেজির। একদিকে হাবাসের কাউন্টার অ্যাটাকিং ফুটবল, অন্যদিকে কিবুর স্প্যানিশ টাচ ফুটবল। কিন্তু শেষ অবধি রয় কৃষ্ণার একমাত্র গোলের জেরে উদ্বোধনী ম্যাচেই জয় পেল এটিকে-মোহনবাগান। তবে রয় কৃষ্ণার গোলের থেকে এটিকেএম্বির এই জয়ের কৃতিত্ব দেওয়া উচিত তাদের দুর্ধর্ষ ডিফেন্সকে। যেভাবে সন্দেশ ঝিঙ্গান এবং তিরি সবুজ-মেরুণের ডিফেন্স সামলেছেন, তাতে কেরালার আক্রমণ উঠতেই পারেনি।

শুরু থেকেই কেরালা নিজেদের অর্ধে বল রেখে খেলেছে। একাধিক বার রয় কৃষ্ণা এবং এডু গার্সিয়া এগোনোর চেষ্টা করলেও কেরালার দুই বিদেশী বাকারি কোনে এবং কোস্টা নামোইনেসু বেশ ভালো ডিফেন্ডিং করছিলেন। তবে প্রথমার্ধে বেশ কয়েকটি সুযোগ পেয়েছিল এটিকে-মোহনবাগান। ২৮ মিনিটে এডু গার্সিয়ার কর্নারে দুরন্ত হেড মেরেছিলেন কার্ল ম্যাকহিউ, কিন্তু তা সাইড দিয়ে বেরিয়ে যায়। ৩৩ মিনিটে দুরপাল্লার জোরালো শট মেরেছিলেন রয় কৃষ্ণা, যদিও তা অল্পের জন্য লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়। এদিকে ৩৭ মিনিটে কেরালা একটি বড় সুযোগ পেয়েও হাতছাড়া করেন, নংদাম্বা নাওরেমের ক্রস গ্যারি হুপারের গায়ে লেগে আসে ঋত্বিক দাসের কাছে, একদম কাছে এসেও মিস করেন ঋত্বিক। প্রথমার্ধ গোলশূন্য অবস্থায় শেষ হয়।

দ্বিতীয়ার্ধে একই ভাবে দুই দলই খেলা শুরু করেছিল। কেরালা ব্লাস্টার্স প্রথমার্ধের তুলনায় বেশ আক্রমণাত্মক শুরু করেছিল, কিন্তু কাউন্টার অ্যাটাকে রয় কৃষ্ণা ও এডু গার্সিয়া বারংবার কেরালার ডিফেন্সে হানা দিচ্ছিলেন। আর শেষ অবধি কেরালার ডিফেন্সের ভুলে গোল পায় এটিকে-মোহনবাগান। বাঁদিক থেকে মনবীর সিংয়ের ক্রস বুঝতে পারেননি কেরালার ডিফেন্ডাররা, আর সেই সুযোগ পেয়ে গোলার মত শট মেরে দলকে এগিয়ে দেন ফিজির তারকা স্ট্রাইকার রয় কৃষ্ণা। গোল করার পর সবুজ-মেরুণ শিবির একেবারে জ্বলে উঠেছিল। গ্যারি হুপার থেকে শুরু করে জর্ডান মারে, ফাকুন্ডো পেরেরা – একাধিকবার আক্রমণে উঠলেও তিরি এবং সন্দেশ আটকে দিচ্ছিলেন। পরীক্ষার মুখে পড়তেই হয়নি সবুজ-মেরুণ গোলকিপার অরিন্দম ভট্টাচার্যকে। শেষ অবধি কঠিন ম্যাচ জিতে শেষ করেছে এটিকে-মোহনবাগান।

তবে সবুজ-মেরুণ শিবিরের বড় চিন্তা হয়ে দাঁড়িয়েছে মাইকেল সুসাইরাজের চোট। এদিকে ৬০ শতাংশ পজেশন রাখলেও স্রেফ ভালো ফিনিশারের অভাবে গোল করতে অক্ষম ছিল কিবু ব্রিগেড। ১০ কোটি টাকা মূল্যের গ্যারি হুপারের মধ্যে ভালো খেলা থাকলেও বড়ই একা পড়ে যাচ্ছিলেন। আর আজ যেন চীনের প্রাচীরের মত দাঁড়িয়ে থেকে ম্যাচ জিতিয়েছেন এটিকেএম্বির দুই তারকা ডিফেন্ডার।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here