এএফসি চ্যাম্পিয়নস লিগে কঠিন গ্রুপ পেল এফসি গোয়া, দেখে নিন প্রতিপক্ষদের প্রোফাইল

0

কুয়ালালামপুর : গতবার আইএসএল লিগ শীর্ষে থাকার দরুণ ইতিহাস তৈরি করেছিল এফসি গোয়া। ভারতের প্রথম ক্লাব হিসেবে এএফসি চ্যাম্পিয়নস লিগের গ্রুপ লিগে খেলার যোগ্যতা অর্জন করেছে এফসি গোয়া, আইএসএল লিগ চ্যাম্পিয়ন হওয়ার দরুণ। আর এদিন গোটা ভারতীয় ফুটবল মহল অপেক্ষায় ছিল গ্রুপ লিগে তাদের প্রতিপক্ষ কারা হবেন। আর শেষে বলাই যায়, বেশ কঠিন গ্রুপে পড়ল এফসি গোয়া।

গ্রুপ ই তে এফসি গোয়া মুখোমুখি হবে ইরানের হেভিওয়েট ক্লাব পেরসেপোলিস এফসি, কাতারি ক্লাব আল রায়ান এবং প্লে অফের জয়ী দল। এই প্লে অফ খেলবে সংযুক্ত আরব আমিরশাহীর ক্লাব আল ওয়াহদা এবং আল জাওরার মধ্যে। এক নজরে দেখে নেওয়া যাক শক্তিশালী প্রতিপক্ষের প্রোফাইল।

পেরসেপোলিস এফসি –

Persepolis FC in the AFC Champions League | Football | News | AFC Champions  League 2020

ইরান তথা এশিয়ার অন্যতম হেভিওয়েট দল পেরসেপোলিস এফসি গতবারের এএফসি চ্যাম্পিয়নস লিগের রানার্স আপ ছিল। এছাড়া ২০১৮ সালেও চ্যাম্পিয়নস লিগে রানার্স আপ হয়েছিল পার্সেপোলিস। ১৩ বার পার্সিয়ান গালফ প্রো লিগ জয়ী এই ক্লাবে কেবলমাত্র একটিই বিদেশী রয়েছেন, আর তিনি হলেন ক্রোয়েশিয়ার গোলকিপার বোজিদার রাদোসেভিচ। এই দলের ছয়জন খেলোয়াড় ইরান জাতীয় দলের নিয়মিত সদস্য। ইস্টবেঙ্গলের একসময়ের টার্গেট অ্যান্থনি স্টোকস গত মরশুমে খেলতেন এই ক্লাবের হয়ে। এই মুহুর্তে জাতীয় লিগে নবম স্থানে রয়েছে পেরসেপোলিস

আল রায়ান এফসি –

Al Rayyan in play-off with Esteghlal for AFC Champions League berth | Qatar  Stars League

এশিয়ার অন্যতম বড় ক্লাব হিসেবে পরিচিত আল রায়ান এফসি। এই দলের কোচ হলেন ফ্রান্সের বিশ্বকাপজয়ী প্রাক্তন ফুটবলার এবং ফরাসি জাতীয় দলের প্রাক্তন কোচ লরা ব্লঁ। আট বারের কাতার স্টার লিগ এবং ছয় বারের এমির অফ কাতার কাপ জয়ী এই ক্লাব অত্যন্ত শক্তিশালী। তাদের দলে মোট পাঁচজন বিদেশী রয়েছেন, কিন্তু এনাদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য খেলোয়াড় হলেন আলজেরিয়ার উইঙ্গার ইয়াসিন ব্রাহিমি এবং আর্জেন্টিনার ডিফেন্ডার গ্যাব্রিয়েল মেরকাডো।

পিএসজি অ্যাকাডেমির ছাত্র ব্রাহিমি খেলেছেন লা লিগা, ফরাসি লিগ ওয়ান, উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের মত ইউরোপের প্রথম সারির টুর্নামেন্টে। এদিকে গত ২০১৮ বিশ্বকাপে আর্জেন্টিনার হয়ে খেলেছিলেন গ্যাব্রিয়েল মেরকাডো। ফ্রান্সের বিরুদ্ধে কোয়ার্টার ফাইনালে গোলও করেছেন তিনি। এর আগে সেভিয়ার হয়ে লা লিগা খেলে আল রায়ানে এসেছেন মেরকাডো।