বেঙ্গালুরু এফসিতে এবার জার্মান স্বাদ, দেখে নিন নয়া হেড কোচ মার্কো পেজ্জাইওলির প্রোফাইল

0

বেঙ্গালুরু : চলতি মরশুম একেবারেই ভালো যাচ্ছে না বেঙ্গালুরু এফসির। এই মুহুর্তে সপ্তম স্থানে রয়েছে তারা, টানা আট ম্যাচে তারা জয়হীন ছিল – যা তাদের ইতিহাসের সব থেকে খারাপ পারফর্মেন্স। হেড কোচ কার্লস কুয়াদ্রাতের বিদায়ের পর নয়া হেড কোচের খোঁজ চলছিল বেঙ্গালুরুর। এতদিন ধরে ইন্টারিম কোচ নউসাদ মুসার অধীনে খেলছিল বেঙ্গালুরু এফসি। কিন্তু এবার নয়া হেড কোচের সন্ধান অবশেষে শেষ হল বেঙ্গালুরুর।

নয়া হেড কোচ হিসেবে আগামী তিন বছরের জন্য নিযুক্ত হলেন জার্মান কোচ মার্কো পেজ্জাইওলি। পারফর্মেন্সের ভিত্তিতে আগামী ২০২৩-২৪ মরশুম অবধি হেড কোচ থাকবেন মার্কো। যদিও কোয়ারেন্টিনের কারণে চলতি আইএসএলে তিনি দায়িত্ব নিতে পারবেন না। আগামী ১৪ এপ্রিল এএফসি কাপের প্রিলিমিনারি স্টেজ থেকে দায়িত্ব নেবেন মার্কো।

৫২ বছর বয়সী এই কোচ নিজের কোচিং কেরিয়ার শুরু করেছিলেন জার্মান দ্বিতীয় ডিভিশন ক্লাব কার্লস্রুহার স্পোর্টিং ক্লাবের হয়ে। সেখানে হেড কোচ, সহকারী কোচ, ইন্টারিম ম্যানেজারের ভূমিকা পালনের পর ২০০৩ সালে দক্ষিণ কোরিয়ার ক্লাব সুয়োন ব্লুউইংসে আসেন মার্কো। সেখানে সহকারী কোচের দায়িত্ব পালন করেছেন তিন বছর। এরপর জার্মানির পঞ্চম ডিভিশন ক্লাব এইনক্রাক্ট ট্রিয়েরের ম্যানেজারের দায়িত্ব পালন করেন।

২০০৭ সালে জার্মানির যুবস্তরের কোচের দায়িত্ব পান মার্কো। সেখানে অনুর্ধ্ব ১৬, অনুর্ধ্ব ১৭, অনুর্ধ্ব ১৫ ও অনুর্ধ্ব ১৮ দলের হেড কোচের দায়িত্ব পালন করেছিলেন। ২০০৯ সালে অনুর্ধ্ব ১৭ দলের হয়ে ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপ জেতেন মার্কো। ২০০৬ বিশ্বকাপের পরে জার্মানির ইউথ সিস্টেমে যুগান্তকারী পরিবর্তন এনেছিলেন মার্কো। মারিও গোতজে, মার্ক আন্দ্রে টের স্টেগেন, স্কোদ্রান মুস্তাফি এবং বার্নড লেনোর মত তারকা খেলোয়াড়দের যুবস্তরে কোচিং করিয়েছেন তিনি। ২০০৮ ইউরো কাপে জার্মানির জাতীয় দলের টিম অ্যানালিস্ট হিসেবেও দায়িত্ব সামলেছেন।

এরপর ২০১০ সালে জার্মানির প্রথম ডিভিশনের ক্লাব টিএসজি হফেনহাইমের সহকারী কোচের দায়িত্ব পান মার্কো। সেখানে রালফ রানগ্নিকের অধীনে থেকে তিনি কোচিং করিয়েছেন রবার্তো ফিরমিনো, ডাভিড আলাবা এবং গিলফি সিগার্ডসনের মত তারকা খেলোয়াড়দের। ২০১১ সালে দলের হেড কোচের দায়িত্ব পালন করলেও বেশিদিন থাকতে পারেননি মার্কো।

তিন বছরের বিরতির পর জাপানের সেরেজো ওসাকা ক্লাবের হেড কোচের দায়িত্ব পান মার্কো। সেখানে কিছু মাস কাজ করার পর চিনের হেভিওয়েট ক্লাব গুয়াংঝাউ এভারগ্রান্ডের ইউথ ডেভেলপমেন্টের দায়িত্বগ্রহণ করেন। তিন বছর সেখানে থাকার পর জার্মানির প্রথম ডিভিশনের ক্লাব এইনক্রাক্ট ফ্র্যাঙ্কফুর্টের টেকনিকাল ডিরেক্টর হিসেবে আসেন মার্কো। সেখানে এসে ফ্র্যাঙ্কফুর্টের অনুর্ধ্ব ১৯ দলের দায়িত্ব নিয়ে নেন। আর তারপরেই যোগ দিতে চলেছেন বেঙ্গালুরু এফসিতে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here