ফেডারেশনের এই বড় সিদ্ধান্তে একুল-ওকুল দুই কুলই যেতে বসেছে এটিকে-মোহনবাগানের

0

পানাজি, গোয়া : এই মুহুর্তে দুর্দান্ত ফর্মে রয়েছে এটিকে-মোহনবাগান। লিগ তালিকায় মুম্বই সিটি এফসিকে টপকে শীর্ষস্থান অর্জন করেছে। কিন্তু গত জানুয়ারি ট্রান্সফার উইন্ডোর একটি সমস্যার জেরে লড়াই চালিয়ে যাচ্ছিল সবুজ-মেরুণ ব্রিগেড। কেরালা ব্লাস্টার্স থেকে নংদাম্বা নাওরেমের আগমণ ও পরিবর্তে শুভ ঘোষের কেরালা ব্লাস্টার্সে যাওয়া নিয়ে বিতর্ক প্রচুর হয়েছে। নাওরেমের চোট লুকিয়ে রাখা নিয়ে ফেডারেশনের কাছে অভিযোগ জানিয়েছিল এটিকে-মোহনবাগান। এদিকে এই সব ঝামেলার জেরে মাঠেও নামতে পারছিলেন না শুভ ঘোষ।

এই বিষয়টি এতদিন ধরে তদন্ত চালিয়ে যাচ্ছিল অল ইন্ডিয়া ফুটবল ফেডারেশনের প্লেয়ার্স স্ট্যাটাস কমিটি। চোটের জেরে এটিকে-মোহনবাগানে এলেও খেলতেই পারবেন না নাওরেম, অন্যদিকে কিবু ভিকুনার অধীনে স্রেফ অনুশীলনই করে চলেছেন শুভ। ফলে সিদ্ধান্ত কি আসে, সেই নিয়ে উদ্বিগ্ন ছিল সকলেই। কিন্তু ফেডারেশন এমন একটি সিদ্ধান্ত নিতে চলেছে, যাতে দুই কুলই যাবে এটিকে-মোহনবাগানের।

ফেডারেশনের সূত্র থেকে খবর মিলেছে, প্লেয়ার্স কমিটির তরফ থেকে আগামী ২৪ ঘন্টার মধ্যে জানানো হবে, কেরালা ব্লাস্টার্সের হয়ে খেলতে পারবেন শুভ ঘোষ। ফলে এটিকে-মোহনবাগান থেকে শুভ ঘোষের ট্রান্সফারে মান্যতা দিতে চলেছে এআইএফএফ। যার জেরে আগামী ম্যাচে মাঠে নামার জন্য উপলব্ধ থাকবেন বাঙালি এই মিডফিল্ডার।

এর ফলে এই কুল আর ঐ কুল দুই কুলই গেল এটিকে-মোহনবাগানের। একেই শুভ ঘোষকে তারা ফেরত পেলই না, বরং চোটের জেরে নংদাম্বা নাওরেমকে এফসি গোয়ায় পাঠিয়ে দিয়েছে এটিকে-মোহনবাগান। ফলে জানুয়ারি ট্রান্সফার উইন্ডোয় একের পর এক ধামাকা করার পর এই একটিই বিষয়ে গোল খেয়ে গেল সবুজ-মেরুণ ব্রিগেড।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here