গোপনীয়তাকে গুরুত্ব দিতে হবে: প্রাইভেসি পলিসি নিয়ে হোয়াটসঅ্যাপকে কড়া বার্তা সুপ্রিম কোর্টের

0

নয়াদিল্লি: কয়েকদিন ধরেই শোনা যাচ্ছে বহুল ব্যবহৃত হোয়াটসঅ্যাপ মেসেনজ্যার আর সুরক্ষিত নেই। যে কোনও মূহুর্তেই ফাঁস হয়ে যেতে পারে আপনার সমস্ত ব্যক্তিগত তথ্য। হোয়াটসঅ্যাপ তাদের প্রাইভেসি পলিসি আপডেট করেছিল। এবার সেই প্রাইভেসি পলিসি নিয়ে সুপ্রিম কোর্টের ভর্ৎসনার শিকার হল হোয়াটসঅ্যাপ, সেই সঙ্গে ফেসবুকও। এই বিষয় নিয়েই নানান আতঙ্কের কথা শুনিয়েছিল সাইবার বিশেষজ্ঞরা।

সেই কারণে হোয়াটসঅ্যাপ ছেড়ে অনেকেই সিগন্যাল বা টেলিগ্রামের মতো অ্যাপ ডাউনলোড করতে শুরু করে দেয়। প্রাইভেসি পলিসি সংক্রান্ত এক মামলায় হোয়াটসঅ্যাপ কর্তৃপক্ষকে এক হাত নিয়ে শীর্ষ আদালত জানিয়েছে, ব্যক্তিগত তথ্য এবং গোপনীয়তা নিয়ে সাধারণ মানুষ বেশ চিন্তিত। সাধারণ মানুষের গোপনীয়তাকে গুরুত্ব দেওয়া আবশ্যিক। এই বিষয়ে প্রধান বিচারপতি বোবদে বললেন,”হতে পারেন আপনারা ২-৩ ট্রিলিয়ন ডলারের সংস্থা। কিন্তু মানুষ নিজেদের গোপনীয়তাকে বেশি গুরুত্ব দেয়।”

তিনি আরও বলেন, “যদি A কোনও মেসেজ B বা C কে পাঠায়, আর সেটা ফেসবুকে শেয়ার হয়ে যায়, তাহলে নিজেদের তথ্য নিয়ে মানুষ ভয় পাবেই। আর মানুষের গোপনীয়তা রক্ষা করা আমাদের কর্তব্য।” সম্প্রতি হোয়াটসঅ্যাপের নতুন প্রাইভেসি পলিসি নিয়ে সরব হয়ে এক সমাজকর্মী এই মামলা করেছিলেন।