বিধানসভায় পেশ হল রাজ্য বাজেট, ঘোষিত ১১টি নয়া প্রকল্প

কলকাতা: সোমবার পেশ হল রাজ্য বাজেট। ২০২০-২০২১ অর্থবর্ষের জন্য বাজেট পেশ করলেন রাজ্যের অর্থমন্ত্রী অমিত মিত্র। এদিন বিধানসভায় তিনি বেশ কিছু প্রকল্পের ঘোষণা করেন। পাশাপাশি দেশের অর্থনীতি পতনে দুষলেন কেন্দ্রীয় সরকারকে।

বিধানসভায় বাজেট পেশের সময় অর্থমন্ত্রী ঘোষণা করেন, বাংলায় ৪০ শতাংশ বেকারত্ব কমেছে। পাশাপাশি ১০০ দিনের কাজ, ক্ষুদ্র শিল্প, গ্রামীণ গৃহ নির্মাণ, স্কিল ডেভেলপমেন্ট, ইজ অফ গোয়িং বিজনেস ও ই-টেন্ডারিংয়ে বাংলা প্রথম। এছাড়াও ১১টি নয়া প্রকল্পের কথা ঘোষণা করেছেন অর্থমন্ত্রী।

চাকরি সংস্থানের জন্য বেশ কয়েকটি প্রকল্পের কথাও ঘোষণা করেন তিনি। ‘কর্মসাথী’ প্রকল্পের মাধ্যমে আগামী এক বছর বেকার যুবক যুবতীদের কর্মসংস্থানের জন্য ঋণদান করবে রাজ্য সরকার। এই প্রকল্পে মোট ৫০০ কোটি টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে। এছাড়া ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পের জন্য ‘বাংলাশ্রী’ প্রকল্পের ঘোষণা করা হয়েছে, মোট ১০০ কোটি টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে এতে। এবং বিনামূল্যে সামাজিক সুরক্ষা প্রকল্পের জন্য ৫০০ কোটি টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে।

পাশাপাশি ‘চা সুন্দরী’ প্রকল্পের দ্বারা চা শ্রমিকদের জন্য ৫০০ কোটি টাকা বরাদ্দ করেছে সরকার। এই প্রকল্পটি মূলত চা বাগানের গৃহহীন শ্রমিকদের মাথার ছাদ দেওয়ার জন্য তৈরি করেছে। বাংলার গরিবদের বিনামূল্যে বিদ্যুৎ প্রদানের জন্য ২০০ কোটি টাকার নয়া প্রকল্প ঘোষণা করেছে সরকার, নাম ‘হাসির আলো’।

তফসিলি জাতি ও উপজাতিদের জন্যও নয়া প্রকল্পের কথা ঘোষণা করা হয়েছে এই বাজেটে। তফসিলি জাতির জন্য ‘বন্ধু’ প্রকল্পে মোট ২৫০০ টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে। এতে তফসিলি জাতির বয়স্কদের মাসে ১০০০ টাকা বার্ধক্যভাতা দেওয়া হবে। পাশাপাশি তফসিলি উপজাতির জন্য ৫০০ কোটি টাকার ‘জয় জহর প্রকল্প’ ঘোষণা করা হয়েছে।

এছাড়া বিরসা মুন্ডা বিশ্ববিদ্যালয় ও আম্বেদকর বিশ্ববিদ্যালয় সহ রাজ্যে আরও নতুন তিনটি বিশ্ববিদ্যালয় তৈরির ঘোষণা করেছেন অর্থমন্ত্রী।