লাদাখে মোদীর সফরের পরেই সুর নরম চিনের

0

বেজিং : প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ও জেনারেল বিপিন রাওয়াতের লাদাখ যাত্রার পরই তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়া জানাল বেজিং। চিনা বিদেশ মন্ত্রকের তরফ থেকে জানানো হয়েছে ভারত চিন উভয়পক্ষই কি করে লাদাখ সীমান্তে শান্তি ফেরানো যায় তাতে উদ্যোগী হয়েছে। চিন এই পরিস্থিতিতে এমন কোনও পদক্ষেপ করবে না যা সীমান্তে অশান্তিকে আরও বাড়িয়ে তোলে।

শুক্রবার সকালে ভারত চিন সমস্যা সরেজমিনে দেখতে এবং ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা নিয়ে আলোচনা কোর্টে লাদাখ গিয়েছেন প্রধান মন্ত্রী মোদী ও চিফ স্টাফ অফ ডিফেন্স জেনারেল বিপিন রাওয়াত। সেখানে সেনাবাহিনীর সঙ্গে একপ্রস্ত আলোচনা হয় মোদীর। সেখানে ভারত চিন সীমান্ত অশান্তির পরিপ্রেক্ষিতে মোদী বলেন “দুর্বলেরা নয়, শান্তির কথা বলতে পারেন বীরেরাই। ভারতীয় সেনার সাহস ও দেশমাতৃকার প্রতি তাদের আত্মনিবেদেনের কোনও তুলনা হয় না।“

মোদীর লাদাখ পরিদর্শনের মাঝেই প্রতিক্রিয়া দেয় বেজিং। চিনের বিদেশ মন্ত্রকের মুখপাত্র ঝাও লিজিয়ান বলেন, ”ভারত ও চিন উভয়পক্ষই নিজেদের মধ্যে সমঝোতা তৈরির লক্ষ্যে আলোচনা করছে। এই পরিস্থিতিতে বেজিং আগ বাড়িয়ে আক্রমণ করবে না যা দু দেশের শান্তিকে বিঘ্নিত করে।”

এমনিতেই সীমান্তে ঝামেলা নিয়ে বিশ্ব রাজনীতিতে চিন যথেষ্ট চাপে। ভারত থেকে একের পর এক চিনা বিনিয়োগ বাতিলের বিষয়ে চিন সরাসরি কোনও প্রতিক্রিয়া না দিলেও চিন যে সীমান্তে শান্তি ফেরাতে তৎপর তা স্পষ্ট করে দিয়েছে চিন বিদেশ মন্ত্রক। চিনের এই বক্তব্যকে যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ বলে মনে করছে কূটনৈতিক মহল।