রাশিয়ার ভ্যাকসিনে সম্মতি নেই WHO-র, চূড়ান্ত ট্রায়াল না হলে ছাড়পত্র নয়

0

অরিত্রা দাশগুপ্ত, জেনেভা : মঙ্গলবারই বিশ্ববাসীর কাছে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন দাবি করেছিলেন, রাশিয়াই আনছে পৃথিবীর সর্বপ্রথম করোনার ভ্যাকসিন স্পুটনিক’ ভি। বৃহস্পতিবার একটি সাংবাদিক সম্মেলনে রাশিয়ার দাবি একপ্রকার নস্যাৎ করে দিল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। তাদের দাবি রাশিয়ার ভ্যাকসিন স্পুটনিক’ ভি এখনো চূড়ান্ত পর্যায়ের ট্রায়ালে অংশ নেয়নি। তাদের কাছে চূড়ান্ত পর্যায়ের ট্রায়ালে অংশ নেওয়া যে ৯ টি ভ্যাকসিনের তালিকা আছে তাতে আশ্চর্যজনকভাবে নাম নেই রাশিয়ার ভ্যাকসিনটির।

খোদ রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট পুতিন সাংবাদিক বৈঠক করে দাবি করেছিলেন রাশিয়ার তৈরি করোনা ভ্যাকসিনের উপযোগিতা প্রশ্নাতীত এবং তার কোনো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নেই। কিন্তু পুতিনের দাবি মানতে নারাজ আমেরিকা-ব্রিটেনের মতো দেশ। সারা পৃথিবীতে ভ্যাকসিন আবিষ্কারের দৌড়ে সবচেয়ে বেশি এগিয়েছিল অক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটি ও অ্যাস্ট্রোজেনেকা। তাদের টেক্কা দিতেই রাশিয়া তড়িঘড়ি স্পুটনিক’ ভি আনার কথা ঘোষণা করেছে বলে দাবি করেছেন বহু দেশের বিশেষজ্ঞরা।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলেছে, সুরক্ষা সম্পর্কিত সমস্ত তথ্য পর্যালোচনা না করে ভ্যাকসিনের ছাড়পত্র দেবে না তারা। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তথ্য অনুযায়ী, রাশিয়ার ভ্যাকসিন এখনো প্রাথমিক পর্যায়ে রয়েছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ডিরেক্টর জেনারেলের উপদেষ্টা ডঃ ব্রুষ এলিওয়ার্ড বলেছেন, ”এই মুহূর্তে রাশিয়ার ভ্যাকসিনকে ছাড়পত্র দেওয়ার মতো তথ্য আমাদের হাতে নেই। রাশিয়ার সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রাখছে WHO। যাতে এই ভ্যাকসিন সম্পর্কে আরও বেশি তথ্য পাওয়া যায়। কি কি পর্যায়ের ট্রায়াল রাশিয়ায় হয়েছে তা জানার পরে আমরা পরবর্তী পদক্ষেপ ঠিক করব।“ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার এই বক্তব্যে স্পষ্ট আপাতত রাশিয়ার করোনা ভ্যাকসিনকে ছাড়পত্র দেওয়ার কোনো কথাই ভাবছে না তারা।