বিহার বিধানসভা নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা নির্বাচন কমিশনের: তিন ধাপে হবে ভোট

0

পাটনা: শুক্রবার ভারতের নির্বাচন কমিশন (ইসিআই) কোভিড- ১৯ শুরু হওয়ার পর প্রথম বিহার বিধানসভা নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করার কথা ছিল। বিহারে তিন ধাপে বিধানসভা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। বিহারের বিধানসভা নির্বাচন ২৮ অক্টোবর ভোটগ্রহণের মাধ্যমে শুরু হবে এবং ভোটের চূড়ান্ত পর্বটি ৭ নভেম্বর অনুষ্ঠিত হবে। ১০ নভেম্বর বিহার বিধানসভা নির্বাচনের ফলাফল প্রকাশিত হবে। নির্বাচন কমিশনার সুনীল আরোরা জানিয়েছেন, প্রথম পর্বের ভোটগ্রহণ ২৮ অক্টোবর, দ্বিতীয় পর্বের ভোটগ্রহণ ৩ নভেম্বর এবং তৃতীয় পর্যায়ের ভোটগ্রহণ ৭নভেম্বর অনুষ্ঠিত হবে।

বিহারের ২৪৩ সদস্যের বিধানসভার মেয়াদ ২৯ নভেম্বর শেষ হবে। অনেক রাজনৈতিক দল মহামারীর প্রেক্ষিতে কমিশনকে নির্বাচন পিছিয়ে দিতে বলেছিল। এবার করোনার কারণে অবশ্যই নির্বাচনের জন্য কঠোর নির্দেশাবলী জারি করা হয়েছে। অনলাইনে মনোনয়ন ফর্ম জমা দেওয়ার অনুমতি দেওয়ার জন্য এবং ভোটারদের ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) ব্যবহারের আগের গ্লাভস সরবরাহ করার অনুমতি দেওয়ার জন্য ঘরে ঘরে প্রচার করা হবে। নির্বাচন কমিশনার প্রধান সুনীল আরোরা বলেছেন যে প্রথম পর্যায়ে বিহারের ১৬ টি জেলার ৭১ টি আসনে ভোটগ্রহণ হবে।

দ্বিতীয় পর্যায়ে ১৭ টি জেলার ৯৪ টি আসনে ভোট হবে। তৃতীয় ও চূড়ান্ত পর্যায়ে ১৫ টি জেলার ৭৮ টি আসনের ভাগ্য নির্ধারণ করা হবে। ক্ষমতাসীন জেডিউ এবং বিজেপি বাদে বিহারের সব রাজনৈতিক দলই করোনার কারণে নির্বাচনের তারিখ পিছানোর দাবি জানিয়েছিল, তবে নির্বাচন কমিশন তাদের দাবি প্রত্যাখ্যান করে এবং ঘোষণা করে দিয়েছে যে করোনা মহামারীর মাঝেই নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। প্রধান নির্বাচন কমিশনার সুনীল আরোরা দাবি করেছেন যে করোনার মহামারীতে মানুষের স্বাস্থ্য ও সুরক্ষার জন্য বিশেষ যত্ন নেওয়া হবে। নির্বাচন কমিশন এ জন্য পুরোপুরি প্রস্তুত।

তিনি জানান, এবার সকাল ৭ টা থেকে সন্ধ্যা ৬ টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ হবে। এবার ভোটের সময়কাল এক ঘন্টা বাড়ানো হয়েছে। কোয়ারান্টাইনে বসবাসকারী ও করোনার রোগী এবং রোগীরাও ভোট দিতে পারবেন। নির্বাচনের প্রস্তুতির জন্য ৪৬ লক্ষ মাস্ক, ৬ লক্ষ পিপিই কিট, ৭.২ কোটি একক ব্যবহারের হাতের গ্লাভস, ৭ লক্ষ হ্যান্ড স্যানিটাইজার এবং ২৩ লক্ষ গ্লোভের ব্যবস্থা করা হবে।