স্ট্র্যান্ড রোডে রেল দফতরে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় শোক প্রকাশ প্রধানমন্ত্রীর, ক্ষতিপূরণ ঘোষণা মমতার

0

কলকাতা: গতকাল রাতে স্ট্র্যান্ড রোডে পূর্ব রেলের অফিসে বিধ্বংসী আগুনে জ্বলে পুড়ে ছারখার হয়ে গিয়েছে বিল্ডিংয়ের তেরো তলা। আগুন নিয়ন্ত্রণ করতে গিয়ে লিফটে আটকে পড়ে প্রাণ হারিয়েছেন ৯ জন উদ্ধারকারী। যাদের মধ্যে ৮ জনকে শনাক্ত করে গিয়েছে। রেল দফতারের এই ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় টুইট করছ গভীর শোক প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তাঁর ট্যুইট, ‘কলকাতায় অগ্নিকাণ্ডে মৃত্যুর ঘটনায় আমি শোকাহত। এই শোকের সময় আমি শোকসন্তস্ত পরিবারগুলির প্রতি সমবেদনা জানাচ্ছি। আহত ব্যক্তিদের দ্রুত আরোগ্য কামনা করছি।’

পাশপাশি যারা মারা গিয়েছেন তাদের পরিবার পিছু ২ লক্ষ টাকা ও গুরুতর আহত ব্যক্তিদের ৫০ হাজার টাকার সাহায্য ঘোষণা করেছে প্রধানমন্ত্রীর দফতর। প্রধানমন্ত্রীর দফতরের পক্ষ থেকে ট্যুইট করে জানানো হয়েছে, ‘কলকাতায় অগ্নিকাণ্ডে যাঁদের মৃত্যু হয়েছে, প্রধানমন্ত্রী জাতীয় বিপর্যয় তহবিল থেকে তাঁদের পরিবারপিছু ২ লক্ষ টাকা করে সাহায্য দেওয়ার কথা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। গুরুতর আহত ব্যক্তিদের ৫০ হাজার টাকা করে দেওয়া হবে।’ উল্লেখ্য, গতকাল রাতে স্ট্র্যান্ড রোডে পূর্ব রেলের দফতরে ভয়াবহ আগুন দলকলকর্মীদের টানা ১০ ঘন্টার অক্লান্ত চেষ্টায় নিয়ন্ত্রণ করে গিয়েছে। আগুন ছড়িয়ে পড়ার প্রাথমিক কারণ অনুমান করা হয়েছে, যত্রতত্র ছড়িয়ে থাকা তারের কুণ্ডলী থেকেই এই আগুন ছড়িয়ে পড়েছে। রয়েছে ফলস্ সিলিং, প্লাইউড দিয়ে তৈরি কিউবিকলও।

দমকলমন্ত্রী সুজিত বসুর দাবি, বিপদের সময় কাজ করেনি অগ্নি নির্বাপণ যন্ত্র। এমনকী অগ্নি নির্বাপণ ব্যবস্থাও পর্যাপ্ত ছিল না বলে অভিযোগ। ওই রাতেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘটনাস্থলে এসে উপস্থিত হন। আগুন নিয়ন্ত্রণ করতে রেলের অসহযোগিতার অভিযোগ তুললেও খারিজ করে দিয়েছেন পূর্ব রেলের জেনারেল ম্যানেজার মনোজ জোশী। তবে এই বিল্ডিংয়ের ম্যাপ দিতে না পারার কথা স্বীকার করে নিয়েছেন রেলের ওই আধিকারিক।