পেট্রোল এবং ডিজেল যানবাহনে কোনও বিধিনিষেধ আরোপ নয়: গড়কড়ি

0

জম্মু ও কাশ্মীর: মোদী সরকার পেট্রোল এবং ডিজেল যানবাহনে কোনও বিধিনিষেধ আরোপ করবে না। কেন্দ্রীয় সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক মন্ত্রী নিতিন গড়করি বলেছেন, মন্ত্রনালয় পেট্রোল-ডিজেল যানবাহন নিষিদ্ধ করার পরামর্শ নিয়েছে৷ তবে আমি স্পষ্ট করে বলতে চাই যে, সরকার পেট্রোল এবং ডিজেল যানবাহন নিষিদ্ধ করার পরিকল্পনা করে না। আমরা এই জাতীয় কিছু করতে যাচ্ছি না৷

তিনি জানান, ভারতের পরিবহন শিল্প দেশের রফতানি ও কর্মসংস্থানে যে অবদান রেখেছে তা সরকার ভালো করেই জানে৷ এই শিল্প রফতানির পরিমাণ বাড়িয়ে দিয়েছে৷ তাই পেট্রোল ডিজেল দ্বারা চালিত যানবাহন নিষিদ্ধ হবে না৷

৫৯ তম বার্ষিক এসআইএএম কনভেনশনে বক্তব্য রাখতে গিয়ে নিতিন গড়করি বলেছিলেন, ‘‘সরকার দেশে পেট্রোল এবং ডিজেল গাড়ি নিষিদ্ধ করার প্রস্তাব দিচ্ছে না। ৪.৫০ লক্ষ কোটি টাকার অটোমোবাইল সেক্টর প্রচুর চাকরি দেয়৷ পাশাপাশি এই সেক্টরের জন্য রফতানিও বেড়েছে। কিন্তু সরকার কিছু সমস্যার মুখোমুখি হচ্ছে। যার মধ্যে প্রথমটি হচ্ছে অপরিশোধিত তেল আমদানির ব্যয়, দ্বিতীয়টি দূষণ এবং তৃতীয়টি রাস্তা নিরাপত্তা৷’’

মন্ত্রী বলেন, দেশের অটোমোবাইল শিল্পটির মূল্য ৪.৫০ লক্ষ কোটি টাকা৷ এই জ্বালানি দূষণ ছড়ায়৷ তাই এইগুলির পরিবর্তে পরিষ্কার জ্বালানি ব্যবহার করা উচিত৷ দূষণজনিত সমস্যার জন্য শুধুমাত্র যানবাহনকে দোষ দেওয়া ঠিক হবে না৷ আরও অন্যান্য কারণেও এই দূষণ হয়ে থাকে৷ দিল্লি বিশ্বের সবচেয়ে দূষিত শহরগুলির মধ্যে একটি৷ ২০১৮ সালের তালিকায় শীর্ষে ছিল দিল্লি।

নিতিন গড়করির কথায়, দিল্লির দূষণ বিশ্বজুড়ে সমালোচিত হয়৷ এই দূষণ মানুষের স্বাস্থ্যের উপর প্রভাব ফেলে৷ সরকার এই সমস্যাটি মোকাবিলার জন্য ৫০,০০০ কোটি টাকার পরিকল্পনা তৈরি করেছে৷ তাতে দিল্লির দূষণের মাত্রা ২৯ শতাংশ নিয়ন্ত্রণ করা হয়েছে।