উন্নয়ন জিতবে, তোষণ পরাস্ত হবে : ভোট দিয়ে বেরিয়েই বিস্ফোরকে দাবি শুভেন্দুর

0

নন্দীগ্রামঃ পরিকল্পনামাফিক লক্ষ্মীবারের সাত সকালেই ভোট দিলেন নন্দীগ্রামের বিজেপি প্রার্থী শুভেন্দু অধিকারী। এদিন সকাল সাড়ে সাতটা নাগাদ বাইকে করে ভোট দিতে যান তিনি। নন্দীগ্রামের নন্দনায়েকবাড়ের ৭৬ নং বুথে ভোট দেন তিনি।রীতিমতো লাইন দিয়েই ভোটগ্রহণ কেন্দ্রে পৌঁছে ভোট দিলেন তিনি৷

ভোট দেওয়ার আগে স্নান সেরে সাত সকালে হাজির হয়ে যান রেয়াপাড়ার দলীয় কার্যালয়ে। ধোপদূরস্ত শুভেন্দুর পরনে ছিল তাঁর পছন্দের সাদা পাজামা-পাঞ্জাবী। কপালে গেরুয়া তিলক। কাঁথির বাড়ি থেকে কালো স্করপিওতে চেপে ভোটকেন্দ্রের উদ্দেশে রওনা হন তিনি। তবে ভোটকেন্দ্রের আগে পেট্রল পাম্পের কাছে গাড়ি থেকে নেমে বাইকে করে গিয়েছিলেন নন্দনায়েকবাড় প্রাথমিক স্কুলের ভোটকেন্দ্রে।

এদিন ভোট দেওয়ার পরেই বুথের বাইরে তুমুল জয় শ্রীরাম ধ্বনি উঠল। ভোট দিয়ে শুভেন্দু অধিকারী জানান, “সকলে শান্তিপূর্ণ ভাবে কোভিড বিধি মেনে ভোট দিন। আমি ভোট দিয়েছি। উন্নয়ন জিতবে, তোষণ পরাস্ত হবে। দুর্নীতি মুক্ত সোনার বাংলা তৈরি হবে”।

উল্লেখ্য, একদা দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রতিপক্ষ হিসেবে নন্দীগ্রামে পদ্মশিবিরের প্রার্থী হয়েছেন শুভেন্দু। দাদার অনুগামীরা এলাকায় জনপ্রিয়। তাই ভোটে জেতার ক্ষেত্রে ফেভারিট এখন তিনিই। একই সঙ্গে কাঁথি থেকে নিজের নাম সরিয়ে নন্দীগ্রামের ভোটারও হয়েছেন। ভোট দিয়ে বেরিয়ে এসে দুই আঙুল তুলে ভিকট্রি চিহ্ন দেখিয়ে দাবি করেন, তিনিই জিতবেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here