তৃণমূল সরকার বিজেপিকে ভয় পাচ্ছে তাই মাওবাদীদের দলে ঢোকাচ্ছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়: দিলীপ ঘোষ

0

শ্রেয়া মাজী, কলকাতা: জেল থেকে মুক্তি পেয়ে ১১ বছর পর বাড়ি ফিরেছেন ছত্রধর মাহাতো। ইনি সেই ছত্রধর মাহাতো যিনি জঙ্গলমহল এলাকায় লালগড় আন্দোলনে মূল ভূমিকা পালন করেছিলেন। ১১ বছর পর জেল ফেরত ছত্রধর মাহাতোকে তৃণমূলে ফেরার ইঙ্গিত দিয়েছে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী। বুধবার জলপাইগুড়ি জেলায় সিএএ-এর সমর্থনে একটি জনসভা থেকে ছত্রধর মাহাতোর তৃণমূলে ফেরা নিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে কটাক্ষ করলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি।

জলপাইগুড়ির জনসভা থেকে তৃণমূলের উদ্দেশ্যে দিলীপ ঘোষ কটাক্ষ করে বলেন, “বিজেপি শক্তির সঙ্গে লড়াইয়ে পেরে উঠছে না তৃণমূল কংগ্রেস। সেই কারণেই প্রাক্তন মাওবাদী ও ক্যাডারদের দলে ঢোকানোর ভাবনা ভাবতে হচ্ছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে।” ছত্রধরের তৃণমূলে যোগদান প্রসঙ্গে তিনি আরও বলেন, “তবে আমি একটি বিষয় খুব স্পষ্ট করে জানিয়ে রাখি – মাওবাদী বা তৃণমূল কংগ্রেস, দুজনে মিলে চেষ্টা করেও এ রাজ্যে বিজেপিকে থামাতে পারবে না।” মানুষ যে বিজেপিকে পছন্দ করছে তার প্রমাণ লোকসভা ভোট, এমনটাই জানিয়েছেন দিলীপ ঘোষ।শুধুমাত্র মুখ্যমন্ত্রী নন তৃণমূল মহাসচিব তথা রাজ্যের শিক্ষা মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় বলেন, ছত্রধর মাহাতো দলে যোগ দিলে তিনি খুশি হবেন। ২০১৫ সালে আদালত এই মাওবাদী নেতাকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডে দণ্ডিত করে। তার পরবর্তীকালে হাইকোর্ট ২০১৯ সালে সেই সাজার মেয়াদ ১০ বছর কমিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়। সেখানেই দেখা যায় তার ১০ বছরের সাজার মেয়াদ অনেক আগেই শেষ হয়ে গিয়েছে। সেই মতোই তাঁকে মুক্তি দেওয়া হয়।

উল্লেখ্য, লোকসভা নির্বাচনে রাজ্যে গেরুয়া ঝড় উঠেছিল। বেশ ভালো ফল করেছিল বিজেপি। এমনকি আদিবাসী অধ্যুষিত জঙ্গলমহলে সাতটি আসনই পেয়েছিল বিজেপি। সেই কারণেই লালগড়ের জমিতে ঘুরে দাঁড়াতে চাইছে তৃণমূল। আর তাই প্রাক্তন মাওবাদী নেতা ছত্রধর মাহাতোকে দলে টানতে চাইছে তৃণমূল। কারণ ছত্রধর মাহাতো দলে এলে খেলা ঘুরে যেতে পারে বলেই অনেকে মনে করছেন। যদিও তৃণমূলে যোগদান নিয়ে প্রাক্তন মাওবাদী নেতাকে কিছু বলতে শোনা যায়নি।