“বিহার পারলে বাংলা কেন পারবে না?”, উম্পুন কেটে গেলেই পরিযায়ী শ্রমিকদের রাজ্যে ফেরাতে আবেদন জানালেন অধীর

0

কলকাতা: “‘দিদি’ আর দেরী নয়, বেলা যে ফুরিয়ে যায়”, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উদ্দেশ্যে এই বার্তা দিয়েছেন কংগ্রেস সাংসদ অধীর রঞ্জন চৌধুরী। কিন্তু কি বিষয়ে এই আবেদন জানালেন কংগ্রেসের দাপুটে নেতা? গত প্রায় ২ মাস ধরে সমগ্র দেশে তাণ্ডব চালাচ্ছে মারণ ভাইরাস করোনা। যার জেরে জারি হয়ে গিয়েছে লকডাউন। এই পরিস্থিতিতে বাংলার হাজার হাজার শ্রমিক আটকে পড়েছেন দেশের বিভিন্ন প্রান্তে। সেই পরিযায়ী শ্রমিকদের ফেরানো নিয়ে চলছে নানারকম জল্পনা, শাসক-বিরোধী তর্জমা।

কিন্তু পশ্চিমবঙ্গের পরিযায়ী শ্রমিকদের রাজ্যে ফেরাতে কংগ্রেস নেতা অধীর রঞ্জন চৌধুরীকে একাধিকবার উদ্যোগ নিতে দেখা গিয়েছে। তবে করোনা সংক্রমণ এবং লকডাউনের মাঝে পশ্চিমবঙ্গের সামনে উপস্থিত হয়েছে আরও এক নতুন সংকট। সুপারসাইক্লোন উম্পুন-এর মোকাবিলায় কোনও ফাঁক রাখতে নারাজ রাজ্যের প্রশাসন। কিন্তু এই সংকট কেটে গেলেই আর দেরি না করে পরিযায়ী শ্রমিকদের রাজ্যে ফেরানোর জন্য মুখ্যমন্ত্রীর কাছে আবেদন জানালেন অধীর রঞ্জন চৌধুরী।

এদিন তিনি বলেন, “পরিযায়ী শ্রমিকদের টাকা দিতে হবে না । তাঁরা নিজের পয়সা খরচ করে হলেও রাজ্যে ফিরতে ইচ্ছুক। আপনি শুধু ঈদের আগে ওনাদের রাজ্যে ফিরিয়ে আনার ব্যবস্থা করুন”। বলা বাহুল্য, পাশের রাজ্য বিহার প্রতিদিন ১০০ টি ট্রেনে করে পরিযায়ী শ্রমিকদের ফেরানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এই প্রেক্ষাপটেই অধীর চৌধুরী বলেন, “বিহার পারলে বাংলা কেন পারবে না? আপনিও প্রতিদিন রাজ্যে ১০০ টি ট্রেন ঢোকার অনুমতি দিন”।