মমতার ভয়টাই সত্যি হল, করোনায় আক্রান্ত দিল্লি ফেরত ৩২ পরিযায়ী শ্রমিক

0

কোচবিহার: দেশ লকডাউনের মধ্যেই বিভিন্ন রাজ্য থেকে নিজেদের বাসস্থানে ফিরছে পরিযায়ী শ্রমিক সহ বহু মানুষ। তবে ট্রেনে মানা হচ্ছে না সামাজিক দুরুত্ব সেই সঙ্গে সঠিক ভাবে পরিক্ষা করে পাঠানো হচ্ছে না বলেই অভিযোগ উঠেছে। তাতেই রয়েছে করোনায় আক্রান্ত হওয়ার প্রবল সম্ভাবনা। সেই সম্ভাবনাকে সত্যি করে করোনায় আক্রান্ত হল ৩২ জন পরিযায়ী শ্রমিক। যারা প্রত্যকে দিল্লি থেকে ১৫ মে ছাড়া ট্রেনে কোচবিহারে ফিরেছেন।

আগের মতো নেই আর করোনা ভাইরাসের উপসর্গ। নিত্যদিন এই ভাইরাস তার প্রকিতি বদল করছে টাই সহজে বোঝার উপায় নেই কে করোনায় আক্রান্ত আর কে নয়। কোচবিহারের জেলাশাসক জানিয়েছেন, পরিযায়ী শ্রমীদের প্রত্যকেই করোনার উপসর্গ বিহীন। এই ঘটনা এটাই প্রথম নয় ট্রেনে করে বাড়ি ফেরার পড়ে অনেক পরিযায়ী করোনা আক্রান্ত হয়েছে।

আরও জানানো হয়েছে আকারন্ত পরিযায়ী শ্রমিকদের শিলিগুড়িতে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। সেই সঙ্গে আক্রান্তদের সংস্পর্শে কারা কারা এসেছেন তাঁদের খোঁজ চালাচ্ছে স্বাস্থ্য দফতর। খতিয়ে দেখা হচ্ছে পুরো বিষয়টি এমনটাই জানিয়েছেন জেলাশাসক। ট্রেনে করে পরিযায়ী শ্রমিকদের ফেরানো নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

বঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী রেলমন্ত্রকের বিরুদ্ধে তোপ দেগে বলেছেন, শ্রমিক এক্সপ্রেসের চালানোর বদলে ‘করোনা এক্সপ্রেস’ চালাচ্ছে রেল। পরিযায়ী শ্রমিকদের এবং অন্যান্য লোকদের বাড়ি ফেরাতে বিশেষ ট্রেনগুলিতে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা হচ্ছে না বলে অভিযোগ করেছেন তিনি।