পথ দুর্ঘটনাকে কেন্দ্র করে পুলিশের সঙ্গে ঝামেলা, রাজ্য সড়ক অবরোধ করল এলাকাবাসীরা

0

কৌশিক সালুই, বীরভূম: পথ দুর্ঘটনাকে কেন্দ্র করে ধুন্ধুমার হল এলাকা। ঘটনাটি ঘটেছে বীরভূমের সিউড়ি থানার খটঙ্গা এলাকায়। গ্রামবাসীদের অভিযোগ পথ দুর্ঘটনায় গুরুতর জখম যুবকের চিকিৎসার জন্য এলাকাবাসীদের কাছ থেকে চাঁদা আদায় করা হচ্ছিল। সেই সময় পুলিশ নির্বিচারে মারধর করে গ্রামের যুবকদের উপর। ওই ঘটনার প্রতিবাদে শনিবার সকালে সিউড়ি রানিশ্বর রাজ্য সড়ক অবরোধ করে রাস্তার উপর টায়ার জ্বালিয়ে বিক্ষোভ দেখানো হয়।

যদিও পুলিশের পাল্টা দাবি পণ্যবাহী গাড়ি আটকে বিভিন্ন জায়গায় চাঁদা তোলা হচ্ছে সেটা বন্ধ করতে পুলিশের নজরদারি। কোথাও মারধরের ঘটনা ঘটেনি। তবে বর্তমানে সমস্যার সমাধান হয়ে গিয়েছে। গত শুক্রবার রাত্রে খটঙ্গা গ্রামের ১৯ বছর বয়সী যুবক সন্ন্যাসী ধীবর মোটর বাইক নিয়ে বাড়ি ফেরার পথে পণ্যবাহী লরির ধাক্কাতে গুরুতর জখম হন। প্রথমে তাকে সিউড়ি সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে ভর্তি করেন গ্রামবাসীরা। সেখান থেকে বর্ধমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করেন চিকিৎসকরা। অবস্থার অবনতি হলে কলকাতার পিজি তে চিকিৎসার জন্য পাঠান চিকিৎসকরা। গ্রামবাসীদের দাবি দুস্থ পরিবারের ওই যুবকের চিকিৎসার জন্য গ্রামবাসীরা একত্রিত হয়ে নিজেদের মধ্যে তহবিল সংগ্রহ করছিল। কিন্তু সিউড়ি থানার পুলিশ এসে তাদের ওপর নির্বিচারে লাঠিচার্জ করে।

ঘটনার প্রতিবাদে শনিবার সকাল থেকে প্রায় ৩ ঘন্টা সিউড়ি থেকে রানিশ্বর যাওয়ার রাস্তার খটঙ্গাতে পথ অবরোধ করেন স্থানীয় বাসিন্দারা। তিলপাড়া সেতুর মেরামতের জন্য আগামী একমাস পণ্যবাহী যান চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছে। সমস্ত পণ্যবাহী গাড়ি সিউড়ি থেকে রানিশ্বর হয়ে শেওড়াকুড়ি রাস্তায় যাওয়া আসা করছে। পুলিশের অভিযোগ বেশি সংখ্যায় পণ্যবাহী যান চলাচলের সুযোগ নিয়ে ওই এলাকার বহু জায়গায় বেশকিছু মানুষ নানা অজুহাতে পণ্যবাহী গাড়ি থেকে টাকা আদায় করছে। গত শুক্রবার রাতে ওই গ্রামের কিছু যুবক সেই ভাবেই পণ্যবাহী গাড়ি থেকে টাকা আদায় করছিল। পুলিশ নিষেধ করাতেই সমস্যার সৃষ্টি হয়। যদিও বর্তমানে সমস্যার সমাধান হয়ে গিয়েছে। কোন মারধরের ঘটনা ঘটেনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here