রাজনৈতিক কর্মসূচিতে বোমাবাজির ঘটনায় গ্রেপ্তার বিজেপির সংখ্যালঘু সেলের জেলা সভাপতি

0

কৌশিক সালুই, বীরভূম: বীরভূমের পাড়ুই থানায় বিজেপির রাজনৈতিক কর্মসূচিতে বোমাবাজির ঘটনায় চাঞ্চল্যকর মোড়। সংগঠনের সংখ্যালঘু মোর্চার জেলা সভাপতি গ্রেফতার। এছাড়া ঐদিনের বোমাবাজির ঘটনা জড়িত সন্দেহে আরো সাতজন গ্রেফতার। পুলিশ এই ঘটনায় মোট ১৮ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে। ধৃতদের মধ্যে চারজন বিজেপি ও ৪ জন তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মী বলে জানা গিয়েছে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে তাঁদের সিউড়ি আদালতে তোলা হলে বিচারক তাঁদের পাঁচদিনের পুলিশ হেফাজতের নির্দেশ দেন। গত বুধবার বিজেপির পারুই থানার রাজনৈতিক কর্মসূচিতে বোমাবাজি ও গন্ডগোলের ঘটনায় গ্রেপ্তার হলেন দলের সংখ্যালঘু মোর্চার জেলা সভাপতি শেখ সামাদ। তিনি ও বাকি সাতজনকে এদিন সিউড়ি আদালতে তোলা হলে বিচারক পাঁচ দিনের পুলিশি হেফাজত মঞ্জুর করেন। পুলিশের পক্ষ থেকে ১০ দিনের হেফাজত চাওয়া হয়েছিল। এদিকে বিজেপি কর্মীদের গ্রেফতার এর বিরুদ্ধে সোচ্চার হলেন দলের জেলা সভাপতি শ্যামাপদ মন্ডল। তিনি বলেন,”আমাদের দলের কর্মীদের শান্তিপূর্ণ রাজনৈতিক কর্মসূচি তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতী রা ব্যাপক বোমাবাজি করে। কর্মসূচি হওয়ার পর শেখ সামাদ সহ কয়েকজন কর্মী সেই ঘটনার বিরুদ্ধে পারুই থানায় অভিযোগ দায়ের করতে যান। সেখানেই তাদেরকে গ্রেপ্তার করে আদালতে পাঠিয়ে দেওয়া হয়”।

প্রসঙ্গত, গত বুধবার বিজেপির গণ ডেপুটেশন প্রদান কর্মসূচিকে কেন্দ্র করে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে পাড়ুই। বিজেপি কর্মীদের লক্ষ্য করে বোমাবাজির অভিযোগ ওঠে তৃণমূলের বিরুদ্ধে। যদিও তৃণমূল কংগ্রেসের অভিযোগ খারিজ করে দেয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here