ছাত্রীর কাছ থেকে টাকা চেয়ে পাশ করিয়ে দেওয়ার প্রতিশ্রুতির অভিযোগে অনিদিষ্ট কালের জন্য সাসপেন্ড অধ্যাপক

0

কুশল দাসগুপ্ত, শিলিগুড়ি: শেষ পর্যন্ত সাসপেন্ড হলেন অমিতাভ কাঞ্জীলাল। রাষ্ট্রবিজ্ঞানের এই অধ্যাপককে অনিদিষ্ট কালের জন্য সাসপেন্ড করা হল। তবে সাসপেন্ড থাকাকালীন তিনি বেতন পাবেন কি না তা জানা যায়নি।

শুক্রবার শিলিগুড়ি কলেজের পরিচালন সমিতির বৈঠকের পরেই অমিতাভ কাঞ্জীলালকে সাসপেন্ড করবার কথা ঘোষনা করা হয়। তার এই সাসপেনসন কার্যকর হচ্ছে দশই অকটোবর থেকে। কলেজের অধ্যাপক সুজিত ঘোষ জানান উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের সার্ভিস রুল অনুযায়ী তার উপরের সব সিদ্ধান্ত কার্যকর করা হবে। তবে এই সাসপেনসন নিয়ে অমিতাভ কাঞ্জীলাল কিছু বলতে চাননি। তার সাথে যোগাযোগ করা হলে তার ফোন বন্ধ পাওয়া গেছে। অন্যদিকে যার অভিযোগের ভিত্তিতে এত হৈচৈ সেই ছাত্রীর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বাইরে গেছেন বলে জানানো হয়।

অন্যদিকে অমিতাভ কাঞ্জীলালের এই সাসপেনসনের খবর পাওয়া মাত্র ছাত্রছাত্রীদের সংগঠনগুলি খুশি প্রকাশ করে জানিয়েছে শাস্তি পাওয়া দরকার ছিলো এবং সেটা হয়েছে তাই তারা খুশি। তবে জুন মাসে হওয়া ঘটনা কেন এত পরে সামনে আসল এই কথা এখন সবারই মুখে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here