বিজেপির সক্রিয় কর্মীর ঝুলন্ত মৃতিদেহ উদ্ধার, দলের অভিযোগ তৃণমূলের বিরুদ্ধে

0

পার্থ খাঁড়া, পশ্চিম মেদিনীপুর: পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার দাঁতন বিধানসভা কেন্দ্রের অন্তর্গত মোহনপুর থানার শিয়ালসাই গ্রামের শ্মশানে সোমবার সকালে একটি গাছে গলায় গামছার ফাঁস লাগানো অবস্থায় বিজেপির সক্রিয় কর্মী বাচ্চু বেরাকে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পায় স্থানীয় বাসিন্দারা। যার ফলে এলাকায় তীব্র উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। বিজেপির অভিযোগ সুপরিকল্পিতভাবে দলের কর্মী বাচ্চু বেরাকে খুন করে গাছে ঝুলিয়ে দেওয়া হয়েছে। তৃণমূল কংগ্রেস আশ্রিত দুষ্কৃতিকারীরা এই ঘটনাটি ঘটিয়েছে। এর ফলে দফায় দফায় মোহনপুর ব্লকের বিভিন্ন এলাকায় পথ অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখায় বিজেপির কর্মী ও সমর্থকরা।

তারা অভিযুক্ত তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মীদের দ্রুত গ্রেপ্তারের দাবি জানায়। যার ফলে ব্যাপক উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে মোহনপুর ব্লক এলাকায়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যায় মোহনপুর থানার পুলিশ। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে প্রায় ৪৫ বছর বয়সী বিজেপি কর্মীর মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠায়। পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয় যে বাচ্চু বেরা আত্মহত্যা করেছে না তাকে খুন করা হয়েছে তা ময়নাতদন্তের রিপোর্ট আসার পর জানা যাবে। তবে পুলিশ সমস্ত দিক খতিয়ে দেখার কাজ শুরু করেছে।

বিজেপির জেলা সভাপতি সমিত কুমার দাস অভিযোগ করে বলেন, এলাকায় অশান্তির বাতাবরণ সৃষ্টি করার জন্য বিধানসভা নির্বাচনের আগে তাদের দলীয় কর্মী বাচ্চু বেরাকে খুন করে গলায় গামছা দিয়ে তৃণমূল কংগ্রেসের দুষ্কৃতীরা গাছে টাঙিয়ে দিয়েছে।তিনি অবিলম্বে তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীদের গ্রেপ্তারের দাবি জানান এবং ওই ঘটনার পূর্ণাঙ্গ তদন্ত করারও দাবি জানান। তিনি বলেন, এভাবে বিজেপি কর্মীদের খুন করে তৃণমূল কংগ্রেস আগামী দিনে তাদের রুখতে পারবে না। বিজেপি কর্মীদের খুন করে তৃণমূল ২০২১ এর বিধানসভা নির্বাচনে বাংলায় তৃণমূল ক্ষমতায় আসবে না, বিজেপি ক্ষমতায় আসবে।

স্থানীয় তৃণমূল কংগ্রেসের পঞ্চায়েত সদস্য সহ এলাকার কয়েকজন তৃণমূল নেতার বিরুদ্ধে মোহনপুর থানায় বিজেপির পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়েছে। তবে বিজেপির আনা অভিযোগ অস্বীকার করেছে তৃণমূল কংগ্রেস। তৃণমূল কংগ্রেসের বিধায়ক বিক্রম প্রধান বলেন, ওই ঘটনার সাথে তৃণমূল কংগ্রেসের কেউ জড়িত নয়। পুলিশ ওই ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে। কি কারণে ওই ঘটনা ঘটেছে তা পুলিশ খতিয়ে দেখছে। তবে বিজেপি এলাকায় অশান্তি সৃষ্টি করার জন্য তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ করেছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here