তৃণমূলের শেষ হয়ে এসেছে, দল ভাঙতে শুরু করেছে: শুভেন্দুর ইস্তফার পর মন্তব্য অধীরের

0

কলকাতা: শুক্রবার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে তৃণমূলের মন্ত্রীসভা থেকে ইস্তফা দিলেন শুভেন্দু অধিকারী। এদিন চিঠি দিয়ে জানিয়ে দিলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী ও রাজ্যপালকে। আর শুভেন্দুর মন্ত্রীত্ব পদ ছেড়ে দেওয়া নিয়ে এদিন শাসক দল তৃণমূলকে একহাত নিলেন রাজ্যের প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর রঞ্জন চৌধুরী। তিনি স্পষ্ট বলে দেন যে, শুভেন্দু অধিকারী না থাকলে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মুখ্যমন্ত্রী হতে পারতেন না।

কটাক্ষ করে মাওবাদী নেতা কিষেনজির কথা টেনে এসে অধীর বলেন, ‘তৃণমূলের যে কজন বড় বড় মাথা রয়েছেন, তাঁদের মধ্যে অন্যতম শুভেন্দু অধিকারী ও তাঁর পরিবার। তবে শুভেন্দুকে কখনই মর্যাদা দেয়নি তৃণমূল। আমি নন্দীগ্রামে গিয়ে দেখেছি, জীবনের ঝুঁকি নিয়ে শুভেন্দু আন্দোলন করে গিয়েছে। এটাই তৃণমূলের স্বভাব। কাজের বেলায় কাজি আর কাজ ফুরোলেই কিষেনজি। তৃণমূলের স্তম্ভ এখন ভাঙা শুরু করেছে।”

যদিও শুভেন্দু অধিকারী বিজেপিতে যেতে পারেন বলে মনে করা হচ্ছে। এই বিষয়ে অধীর বলেন, “শুভেন্দু কোন দলে যাবেন তা তাঁর সিদ্ধান্ত। তবে তৃণমূল শেষ হয়ে এসেছে।” বিধানসভা ভোটের আগে রাজ্যে শুভেন্দু অধিকারীর রাজনৈতিক ভবিষ্যত নিয়ে জল্পনা শুরু হয়েছিল অনেক দিন থেকেই। এর আগে নিজের জেড ক্যাটাগরি নিরাপত্তা ছেড়েছিলেন তিনি। এবার ইস্তফাও দিয়ে দিলেন। শুভেন্দু চিঠিতে লেখেন, “রাজ্যের মানুষের সেবার সুযোগ দেওয়ার জন্য ধন্যবাদ।”