মোদীর মন্ত্রিসভায় কোনো বাঙালী মন্ত্রী নেই অথচ বাংলা দখলের স্বপ্ন দেখছে: কটাক্ষ তৃণমূলের

0

পার্থ খাঁড়া, মেদিনীপুর: “প্রশাসক নয় ভোট চাই” এই দাবিতে শুক্রবার মেদিনীপুর পৌরসভা ঘেরাও করে বিক্ষোভ দেখালো বিজেপি। এদিন সকাল ১১ টা থেকে পুরসভার গেটে বিক্ষোভ প্রদর্শন করে বিজেপির। বিজেপি নেতৃত্বের অভিযোগ, গত ২০১৮ সালের এপ্রিল মাসে মেদিনীপুর পৌর বোর্ডের মেয়াদ শেষ হওয়া সত্ত্বেও প্রায় ২ বছর ৭ মাস পৌরসভায় প্রশাসক নিয়োগ করে চালানো হচ্ছে।

যার ফলে একদিকে যেমন মেদিনীপুর পৌরবাসী পৌর পরিষেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে, তেমনই অন্যদিকে বিভিন্ন খাতে অর্থ তছরুপ চলছে পৌরসভায়। তাই প্রশাসক নিয়োগ না করে অবিলম্বে পুরসভার নির্বাচনের দাবিতে সোচ্চার হয়েছে জেলা বিজেপি। এদিনের কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন বিজেপি জেলা সভাপতি শমিত দাস, জেলা সম্পাদক অরুপ দাস, জেলার দুই সাধারণ সম্পাদক শঙ্কর গুছাইত, তপন মান্না, দেবাশীষ দাস সহ অন্যান্যরা।

এদিকে বিজেপির এদিনের পুরসভা ঘেরাও অভিযানকে কটাক্ষ করেছেন তৃণমূল নেতা দেবাশীষ চৌধুরী। তিনি জানান, সিপিএমকে হটিয়ে এ রাজ্যে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করেছেন মমতা ব্যানার্জি। তাই তাঁর হাত শক্ত করতেই মানুষ পুরসভা ও পঞ্চায়েত নির্বাচনে দুই হাত তুলে ভোট দিয়েছেন। পুরসভার মেয়াদ শেষ হওয়ার পর রাজ্য সরকার যখন পুর ভোটের প্রস্তুতি নিচ্ছিল তখনই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী দেশজুড়ে লকডাউন ঘোষণা করেন।

আনলক পর্ব যখন এল তখন ৭ মাস পেরিয়ে গেছে। বিজেপি নেতাদের প্রশ্ন করুন তাঁরা এতদিন কোথায় ছিলেন। দেবাশীষ জানান, বাংলায় বিজেপির কোনো নেতা নেই। তাই বাইরের রাজ্য থেকে নেতা আনতে হচ্ছে। যে ৫ জন এসেছেন তাঁরা কেউ বাঙালি নন। মোদীর মন্ত্রিসভায় কোনো বাঙালী মন্ত্রী নেই। অথচ সেই দল বাংলা দখলের স্বপ্ন দেখছে।