‘দুয়ারে সরকার’ কর্মসূচিতে তৃণমূল নেতাদের দাদাগিরি, সরকারি কর্মীকে হেনস্তার অভিযোগ

0

কৌশিক সালুই, বীরভূম: দুয়ারে সরকার কর্মসূচিতে সরকারি কর্মীকে হেনস্তার অভিযোগ উঠল এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার বীরভূমের সাঁইথিয়া ব্লকের বনগ্রাম গ্রাম পঞ্চায়েতে। অভিযুক্ত ব্যক্তি স্থানীয় তৃণমূল নেতা বলে জানা গিয়েছে। যদিও তৃণমূল হেনস্থার অভিযোগ অস্বীকার করেছে। ইতিমধ্যেই রাজ্য জুড়ে শুরু হয়েছে “দুয়ারে সরকার” কর্মসূচি। এদিন বনগ্রাম গ্রাম পঞ্চায়েতে সেই কর্মসূচিতে সরকারি কর্মী হরিপদ দাসকে নিগ্রহের অভিযোগ উঠল এক স্থানীয় তৃণমূল নেতা অরবিন্দ বন্দোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে।

তিনি হরিসরা গ্রাম পঞ্চায়েতের তৃণমূলের অবজার্ভার এর দায়িত্বে আছেন। তিনি তার গ্রামের এক ব্যক্তিকে নিয়ে ওই কর্মসূচিতে স্বাস্থ্য সাথী প্রকল্পে নাম অন্তর্ভুক্তি করার জন্য গিয়েছিলেন। অভিযোগ নাম নথিভুক্ত সময় প্রয়োজনীয় নথি না দিয়ে সংশ্লিষ্ট ফর্ম জমা করার জন্য সরকারি কর্মীকে জোর করতে থাকেন। সরকারি কর্মী রাজি না হলে তখনই তাকে ধাক্কাধাক্কি করা হয় বলে দাবি।

সরকারি কর্মী হরিপদ দাস সংবাদ মাধ্যমে জানান, “স্বাস্থ্য সাথী প্রকল্পে নাম নথিভুক্ত সময় ফর্মের সঙ্গে প্রয়োজনীয় নথি জমা দিতে বলা হয়েছিল তখন নিগ্রহ করা হয়।” সাঁইথিয়া ব্লক তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি সাবের আলী খান বলেন, “সরকারি কর্মীকে কোনভাবেই হেনস্থা করা হয়নি। তবে সমস্যা মিটে গিয়েছে।” সাঁইথিয়া ব্লক বিডিও সা স্বাতী দত্ত মুখার্জী বলেন, “যে ব্যক্তি স্বাস্থ্য সাথীর কার্ড জমা করতে গিয়েছিলেন তার ফর্ম জমা নেওয়া হয়েছে।”