“বাজে কথা বলবেন না”, মুখ্যমন্ত্রীর বিনামূল্যে ভ্যাকসিন দেওয়ার ঘোষণাকে কটাক্ষ বাবুলের

0

কলকাতা: রাজ্য বিনামূল্যে করোনার ভ্যাক্সিন দেবে, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের এহেন বক্তব্যকে কটাক্ষ করলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়। একটি রাজ্য সংবাদ মাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে মুখ্যমন্ত্রীর ঘোষনাকে বিঁধে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল বলেছেন, ‘‘প্রধানমন্ত্রী সব রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সিং করেছেন। অবশ্যই, সমস্ত রাজ্যের স্বাস্থ্যকর্মীদের গ্রাউন্ড ইনোকুলেশন করতে হবে। কেন্দ্রই তো এখন বিনামূল্যে ভ্যাক্সিন সরবরাহ করছে। আমি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে অনুরোধ করছি, আপনি নতুন করে বিনামূল্যে ভ্যাক্সিন দেওয়ার মতো বাজে কথা বলবেন না।”

সোমবার বিভিন্ন রাজ্যের মন্ত্রীদের সাথে হওয়া বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী জানান, তিন কোটি ভ্যাকসিনের ডোজ বিনামূল্যে রাজ্যগুলিকে দেওয়া হবে। তবে রাজ্যে বিনামূল্যে ভ্যাকসিন দেওয়ার ঘোষণা করলেন কেন করলেন মমতা? এই বিষয় নিয়ে মমতাকে বিঁধলেন বাবুল। তাঁর মতে , ‘‘বিনা পয়সায় ভ্যাক্সিন দেওয়ার মতো বাজে কথা বলবেন না। কেন্দ্রীয় সরকারই তো আপনাকে বিনা পয়সায় ভ্যাক্সিন দিচ্ছে।’’ গতকালই কলকাতায় পৌঁছেছে পুনের সেরাম ইন্সটিটিউটে তৈরি অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রোজেনেকার কোভিশিল্ড। কাল থেকেই কলকাতা সহ বিভিন্ন জেলায় ভ্যাকসিন বণ্টন হতে শুরু হয়।

সূত্রের খবরব অনুসারে, ১০ লক্ষ ডোজ করোনা ভ্যাকসিন এসেছে পশ্চিমবঙ্গে। এর মধ্যে বাংলার জন্য ৭ লক্ষ ডোজ ভ্যাক্সিন, ৩ লক্ষ ডোজ পাঠানো হয়েছে পূর্ব এবং উত্তর-পূর্ব ভারতে। গতকাল রাত থেকেই কলকাতা থেকে জেলায় জেলায় পাঠানো শুরু হয় ভ্যাকসিন। প্রথম তালিকায় থাকছে – চিকিৎসক, নার্স-সহ স্বাস্থ্যকর্মী, পুলিশ ও বিভিন্ন নিরাপত্তাবাহিনীর সদস্যরা। জানা যাচ্ছে, কলকাতার জন্য স্থগিত রয়েছে ৯৩ হাজার ৫০০ ডোজ ভ্যাকসিন। কলকাতা লাগোয়া উত্তর ২৪ পরগনা জেলায় ৪৭ হাজার ৫০০ করোনার ভ্যাকসিনের ডোজ পাঠানো হয়েছে। একই ভাবে মুর্শিদাবাদ জেলায় ৩৭ হাজার ৫০০ করোনার ভ্যাকসিনের ডোজ পাঠানো হয়েছে। আগামী ১৬ জানুয়ারি থেকে এই ভ্যাকসিন দেওয়ার কাজ শুরু হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here