মিলকল মালিকদের সঙ্গে যোগসাজসে কৃষকদের সর্বনাশ করেছে তৃণমূল কংগ্রেস, মমতাকে সুবিধাবাদী বলে কটাক্ষ শুভেন্দুর

0

পার্থ খাঁড়া, পশ্চিম মেদিনীপুর: পশ্চিম মেদিনীপুরের চন্দ্রকোনার খেজুরডাঙায় শনিবার ভারতীয় জনতা পার্টির একটি জনসভা থেকে তৃণমূল কংগ্রেসের নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে সরব হন বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারী । সেদিন তিনি তৃণমূল কংগ্রেসের নেত্রীকে সুবিধাবাদী বলে কটাক্ষ করেন। একই সঙ্গে রাজ্যে বাম শাসনের সময়ে পঞ্চায়েত ব্যবস্থা ও ভূমি সংস্কারের কাজের প্রশংসাও করেছেন। শনিবার তিনি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধেও সরব হয়েছিলেন।

শুভেন্দু অধিকারী বলেছিলেন, বিজেপির সাহায্য নিয়ে ১৯৯৮, ১৯৯৯ এবং ২০০৪-এর নির্বাচনে লড়াই করেছিল তৃণমূল এবং তাঁদের নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। অতীত স্মরণ করেয়ে দিয়ে তিনি বলেন, পরপর দুবার অটলবিহারী বাজপেয়ী মন্ত্রিসভায় রেল ও কয়লা দফতরের দায়িত্বও সামলেছেন এখন সেই বিজেপির বিরোধিতায় সরব হয়েছেন। রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে সরকারি স্থায়ী চাকরি তুলে দেওয়ার অভিযোগ করেন তিনি। পাশাপাশি বলেন, শ্বেতপত্র প্রকাশ করে বলুন কত স্থায়ী পদ তুলে দিয়েছেন। তিনি বলেন, ২০১১ সালে রাজ্যে এককোটির বেশি বেকার ছিল। আর ২০২০-তে তা বেড়ে গিয়ে দুকোটির বেশি হয়েছে। রাজ্যে কোনও বড় শিল্প না আসায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সমালোচনা করেন।

একই সঙ্গে শুভেন্দু অধিকারী তাঁকে বিশ্বাসঘাতক এবং মীরজাফর বলার জবাব দেন। শুভেন্দু অধিকারী বলেন, রাজ্যের ধান, আলুচাষীদের দূরাবস্থার কথাও তার বক্তব্যে তুলে ধরেন। তাঁর অভিযোগ মিলকল মালিকদের সঙ্গে যোগসাজসে কৃষকদের সর্বনাশ করেছে তৃণমূল কংগ্রেস। আলু চাষীরা দাম পাচ্ছেন না বলে মন্তব্য করেছেন। পাশাপাশি স্বাস্থ্যসাথীর নামে মিথ্যাচার হচ্ছে বলে মন্তব্য করেন।