চোরাচালানকারীদের উদ্দেশ্যকে ব্যর্থ করল বিএসএফ, উদ্ধার বিপুল সোনা, গ্রেফতার এক মহিলা

0

দক্ষিণ ২৪ পরগণা: সীমান্ত সুরক্ষা বাহিনী আন্তর্জাতিক সীমান্তে চোরাচালানকারীদের উদ্দেশ্যকে ব্যর্থ করে ৪৩১৫.৯২ গ্রাম সোনার সাথে এক মহিলা পাচারকারীকে গ্রেফতার করেছে বিএসএফ। বিএসএফ সূত্রে জানানো হয়েছে, ওই মহিলা সোনার সঙ্গং ১৫৮ বাহিনী সীমান্ত চৌকি আংরাইল, উত্তর ২৪ পরগনা জেলার একটি অঞ্চল দিয়ে বাংলাদেশ থেকে ভারতের দিকে চলে আসার চেষ্টা করছিল। গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে সীমা চৌকি আঙ্গরাইলের বন অঞ্চলে ১৫৮ বাহিনীর সীমা চৌকি আঙ্গরাইলের জওয়ানরা একটি তল্লাশি অভিযান চালায়। তল্লাশি অভিযানের সময় জওয়ানরা এক সন্দেহভাজন মহিলাকে বাবনপালি গ্রাম থেকে বন-পথ ধরে আঙ্গরাইল বাজারের দিকে যেতে দেখাতে পায়।

মহিলাটি গোপাল বনগাঁ রোড পেরোনোর চেষ্টা করার সময় সীমান্ত সুরক্ষা বাহিনী তাকে থামিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করে। সেই সময়ে, পাশের একটি বাড়িতে সীমান্ত সুরক্ষা বাহিনীর মহিলা জওয়ানরা অভিযুক্ত মহিলার তল্লাশি করে। তল্লাশির সময় ওই মহিলার কাছ থেকে ৩৭ টি সোনার বিস্কুট পাওয়া যায় যার ওজন ৪৩১৫.৯২ গ্রাম ছিল। ওই মহিলাকে সঙ্গে সঙ্গে সীমান্ত সুরক্ষা বাহিনী দ্বারা গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তার হওয়া মহিলার নাম আরতি মণ্ডল, বয়স ৫২ বছর। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ চলাকালীন, মহিলাটি জানিয়েছেন সে গ্রাম আংরাইল, থানা গাইঘাটা, জেলা উত্তর চব্বিশ পরগনার বাসিন্দা ও ভারতীয় নাগরিক। সে সোনা পাচার করে বলে জানিয়েছে। গ্রেফতার হওয়া ওই মহিলা জানিয়েছে, সোনা বাংলাদেশের মোহাম্মদ নাসিরউদ্দিন বিশ্বাস পলাশ মণ্ডলকে ইছামতি নদীর ধারে দিয়েছিল। তবে মহিলাটি বনের পথ দিয়ে আসার সময় জওয়ানদের নজরদারি থেকে বাঁচতে পারেনি এবং সীমান্ত সুরক্ষা বাহিনী তাকে ধরে ফেলে। মহিলাটি আরও জানিয়েছে আগেও দু’বার এই কাজ করেছে।

মহিলাটি বক্তব্য কিছু ভারতীয় পাচারকারী এই পাচারের সাথে জড়িত আছে। গ্রেফতার হওয়া ওই মহিলাকে ও উদ্ধার হওয়া সোনা কলকাতা রাজস্ব গোয়েন্দা অধিদপ্তরের হাতে হস্তান্তর করা হয়েছে। ১৫৮ বাহিনীর কমান্ডিং অফিসার জওয়ানদের এই কৃতিত্বের জন্য আনন্দ প্রকাশ করেছেন। তিনি বলেছিলেন যে তাঁর জওয়ানরা ডিউটিতে সতর্ক থাকার জন্যই এটি সম্ভব হয়েছিল। তিনি বলেছিলেন যে আজকাল চোরাচালানকারীরা মহিলাদের চোরাচালানের সাথে জুড়ে চোরাচালানের একটি নতুন পদ্ধতি অবলম্বন করছে তবে সচেতন বিএসএফ জওয়ানরা চোরাচালানকারীদের এই নতুন কৌশলও সফল হতে দেবে না।