শুভেন্দুর সঙ্গে বারুইপুরে ভোটের ময়দানে রাজীব, বিজেপিতে যোগদান করবেন ডায়মন্ড হারবারের বিধায়ক

0

কলকাতা: ২১ এর নির্বাচনকে ঘিরে তোলপাড় বঙ্গ রাজনীতি। রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল ও বিরোধী দল বিজেপি একে অপরকে টেক্কা দিতে ব্যস্ত। প্রায় রোজই চলছে রাজনৈতিক দলগুলির সভা, মিটিং-মিছিল ও ভোট প্রচারের পালা। মঙ্গলবার বারুইপুরে সভা করবেন বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারী ও রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়। আর এদিন বারুইপুরের সভায় শুভেন্দু-রাজীবের উপস্থিতিতে বিজেপিতে যোগ দেবেন সদ্য দলত্যাগী ডায়মন্ড হারবারের বিধায়ক দীপক হালদার।

তৃণমূল একাধিক নেতার মতো দীপক হালদারও অনেক দিন থেকেই ‘বেসুরো’ ছিলেন তিনি। বেশ কয়েকদিন তৃণমূলের দলীয় কোনও কর্মসূচিতে যোগ দেননি তিনি। আসন্ন নির্বাচনের আগে বেসুরো তৃণমূল নেতাদের বিজেপিতে যোগদানের হিড়িক দেখে অনেকেই বলছেন শাসক দল বেশ কিছুটা চাপে রয়েছে। শনিবার অমিত শাহের পাঠানো বিশেষ বিমানে দিল্লি রওনা দিয়ে রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়, প্রবীর ঘোষাল, বৈশালী ডালমিয়া সহ বেশ কিছু জন বিজেপিতে যোগদান করেন।

এই ঘটনাকে গুরুত্ব দিতে নারাজ তৃণমূল সুপ্রিমো তথা বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। যারা দলবদল করেছেন বা করছেন তা নিয়ে একেবারেই তিনি চিন্তিত নন বলেই স্পষ্ট ভাবে জানিয়ে দিয়েছেন। মুখ্যমন্ত্রীর কথায়, “আগের থেকে যোগাযোগ রেখে চলে গেছে বেশ কিছু সুবিধাবাদী নেতা যারা শুধুমাত্র টাকা চেনেন। নিজেদের আখের গুছিয়ে এখন তারা নাম লিখিয়েছেন বিজেপিতে। এইসব সুবিধাবাদী নেতারা আজ অন্য দলে চলে যাওয়াতে কোন অসুবিধাই হবে না তৃণমূলের।”