২১-এর নির্বাচনে জিততে ময়দানে মুখ্যমন্ত্রী, চলতি মাসেই বর্ধমান সফরে যাচ্ছেন মমতা

0

বর্ধমান: গত লসভা নির্বাচনে বেশ কিছুটা জায়গা দখল করে বাংলায় আধিপত্য বিস্তার করেছে বিজেপি। এমনকি বিজেপি বঙ্গ জয়ের স্বপ্নে বিভোর হয়ে রয়েছে। তবে লোকসভা নির্বাচনের ফলাফল থেকে শিক্ষা নিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। একই ভুল যাতে আর না হয় সেই কারণে তিনি জেলায় জেলায় ঘুরে সভা করে ফাঁকা জায়গা পূরণ করে দিতে চাইছেন। সম্প্রতি উত্তরবঙ্গ সফর করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। আগামী ৯ ফেব্রুয়ারি থেকে বর্ধমানের মাটিতীর্থ কৃষিকথা প্রাঙ্গণে আয়োজিত মাটি উৎসবের সূচনা করবেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেই সঙ্গে তৃণমূল সূত্রে খবর বর্ধমানের কালনাতে মুখ্যমন্ত্রীর সভা করার কথা রয়েছে।

রাজ্যের কৃষিমন্ত্রী আশিস বন্দ্যোপাধ্যায় বর্ধমানে মাটি উৎসব হওয়ার আগেই বুধবার প্রস্তুতি বৈঠক করেছেন। কৃষিমন্ত্রী বলেছেন, “মুখ্যমন্ত্রী প্রতিবারের মতো এবারও মাটি উৎসবের সূচনা করবেন।” বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন মুখ্যমন্ত্রীর কৃষি উপদেষ্টা প্রদীপ মজুমদার। তিনি এই প্রসঙ্গে বলেছেন, মুখ্যমন্ত্রীর কৃষি উপদেষ্টা প্রদীপ মজুমদার বলেন, “মুখ্যমন্ত্রী রাজ্যে যন্ত্রায়ণে গুরুত্ব দিয়ে কৃষকের চাষের খরচ কমিয়ে উৎপাদন বাড়িয়েছেন। কৃষকের আয় বৃদ্ধি করেছেন। আধুনিক যন্ত্র চালনায় আগে ভিনরাজ্য থেকে চালকরা আসতেন। খরচ বেশি হত। এবার রাজ্য সরকারের উদ্যোগে সেই সব যন্ত্র চালনা ও রক্ষণাবেক্ষণের প্রশিক্ষণ কেন্দ্র গড়া হয়েছে। ভারতের মধ্যে প্রথম সরকারি উদ্যোগে এমন প্রশিক্ষণ কেন্দ্র গড়া হয়েছে মাটিতীর্থ কৃষিকথা প্রাঙ্গণে।”

প্রদীপবাবু জানিয়েছেন মমতার হাত দিয়েই বিভিন্ন প্রকল্পে সহায়তা প্রদান, প্রকল্পের উদ্বোধন ও শিলান্যাস করারও পরিকল্পনা রয়েছে। রাজ্য সরকারের উদ্যোগে বর্ধমানেই গড়ে উঠেছে ভারতের মধ্যে প্রথম কৃষিযন্ত্র চালনা ও পর্যবেক্ষণ এবং রক্ষণাবেক্ষণের প্রশিক্ষণ কেন্দ্র। মাটি উৎসবের সূচনার পাশাপাশি মুখ্যমন্ত্রী কৃষি কলেজের নবনির্মিত ভবনেরও উদ্বোধন করবেন। আসন্ন নির্বাচনে তৃতীয় বারের জন্য সরকার গঠনের জন্য মরিয়া প্রয়াস চালাচ্ছে তৃণমূল। নেতা কর্মীরা তো রয়েছেন সেই সঙ্গে মানুষের আরও কাছে পৌঁছে যেতে ময়দানে নেমেছেন স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রী।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here