“তুমি শান্তিপুর ছেড়ে পালাও”, শান্তিপুরের অরিন্দম ভট্টাচার্যকে হুমকি সাধারণ জনগণের

0

নদীয়া: কয়েকদিন আগেই নদীয়া জেলার শান্তিপুরের বিধায়ক অরিন্দম ভট্টাচার্য বিজেপিতে যোগ দেন। তারপর থেকেই বেজায় চটেছেন এলাকার গ্রামবাসী। এমনকি দেওয়ালে খুনের হুমকি পর্যন্ত দেওয়া হয়েছে তাঁকে। যা ঘিরে চাঞ্চল্য ছড়ায়। শান্তিপুর এর করমচাপুর এবং বাগদেবীপুর এলাকায় একাধিক দেওয়ালে নীল কালিতে খুনের হুমকি দেওয়া দেওয়াল লিখন করা হয়েছে। এই নিয়ে থানায় অভিযোগ দায়ের করেন নেন অরিন্দম।

শান্তিপুরের একাধিক জায়গায় বিধায়কের বিরুদ্ধে পোস্টার দেখা যায়। শান্তিপুর শহরের ২৪ নম্বর ওয়ার্ডের, রামনগর চর, শশী খাঁ পোল, ১১ নম্বর ওয়ার্ডের ডাকঘর, ১৩ নম্বর ওয়ার্ডের বড়বাজার, বেলঘড়িয়া ২ নম্বর অঞ্চলের ফুলিয়া পাড়া, হরিপুর অঞ্চলের নৃসিংহ পুর এ রকমই শান্তিপুর শহর ও গ্রামের একাধিক জায়গায় পোস্টার পড়তে দেখে এলাকাবাসী।

যাতে লেখা আছে “দম বন্ধ হওয়া শান্তিপুর আজ অভিশাপমুক্ত, অশুভ শক্তির বিনাশ, তাই শান্তিপুরের ঘরে ঘরে নতুন করে আজ বাঁধভাঙ্গা স্বাধীনতার আনন্দ।” আবার কোনওটায় লেখা, “পাপটা বিদায় হয়েছে, তৃণমূল কংগ্রেস জিতে গিয়েছে, বাকি শুধু আবির খেলা, অরিন্দম তুমি শান্তিপুর ছেড়ে পালাও।”

অরিন্দমের অভিযোগ সরাসরি শাসক দলের দিকে। তিনি বলেন, তার বিরুদ্ধে গত ২ জানুয়ারি সকালে শান্তিপুর পুর এলাকার একাধিক জায়গায় রঙিন কুরুচিকর পোস্টার পড়ে। এরপর এবার বাগআঁচড়া গ্রাম পঞ্চায়েতের করমচাপুর এবং হরিপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের বাগদেবীপুর এলাকায় নীল কালিতে দেওয়াল লিখন চোখে পড়ে।

উল্লেখ্য কংগ্রেসের টিকিটে জোটের সহযোগিতায় জয়ী হয়েছিল নদীয়ার অরিন্দম ভট্টাচার্য। শান্তিপুর বিধানসভার বিধায়ক হন তিনি। পরে তৃণমূল কংগ্রেসে যোগদান এবং তারও কিছুদিন পর বিজেপিতে যোগদানের ফলে লোকালয়, সর্বত্রই দলত্যাগের বিরুদ্ধে ক্ষোভ আছড়ে পরে সাধারন মানুষের।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here