সিএএ নিয়ে বেজায় ফেঁসেছে বিজেপি, বঙ্গ-অসমের নির্বাচনে ফায়দা তুলতে তৈরি বিরোধীরা

0

কলকাতা: আসন্ন নির্বাচনকে ঘিরে বঙ্গ রাজনীতিতে প্রতি নিয়ত পারদ চড়ছে। বর্তমানে আবারও বঙ্গ সফরে এসেছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। নামখানা থেকে সূচনা করেন বিজেপির পঞ্চম তথা শেষ পরিবর্তন যাত্রা, মধ্যাহ্নভোজ সারেন উদ্ধাস্তু পরিবারে। বিজেপি এখন বাংলা দখলের স্বপ্নে বিভোর। তবে শাসক দলও সেই স্বপ্নকে দিবা স্বপ্ন প্রমাণ করতে মরিয়া। তবে বিজেপির বঙ্গ জয়ের স্বপ্নের পথে বাধ হয়ে দাঁড়াতে পারে সিএএ। বিজেপি বিরোধী রাজ্যগুলি কিছুতেই মেনে নিতে চাইছে না এই নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন।

বাংলায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, অসমে রাহুল গান্ধী, কেরলে পিনারাই বিজয়নরা সিএএ এর বিরোধিতা করে এসেছে সব সময়ই। উত্তর-পূর্ব ভারতে এই সিএএ নিয়ে প্রচুর ঝামেলা-বিক্ষোভ চলেছে, অসম তার মধ্যে অন্যতম। বলা বাহুল্য, এই বছর অসমেও বিধানসভা নির্বাচন রয়েছে। এর আগে ঠাকুরনগরের সভায় এসে অমিত শাহ বলেছিলেন যে করোনা টিকাকরণ সম্পূর্ণ হলেই সিএএ লাগু হবে দেশজুড়ে। ২০১৯ সালের ডিসেম্বর মাসে সংসদে পাশ হয়েছিল সিএএ বিল, যা পরে আইনে পরিণত হয়।

তবে বিজেপি বিরোধী দলগুলি নির্বাচনের সময় সিএএ-কেই হাতিয়ার করছে। সাধারণ মানুষের সিএএ বিরোধীর ফায়দা তুলছে তারা। আর এই সিএএ মানুষকে বিজেপি বিরোধী করে তুলছে। বেজায় ফেঁসেছে বিজেপি, না পারছে সিএএ সরাতে, না সাধারণ মানুষের মন জিততে পারছে। বঙ্গে নির্বাচনের আগে শাসক বিরোধী দলের মধ্যে চলছে ইঞ্চিতে ইঞ্চিতে লড়াই। তৃণমূল সুপ্রিমো তথা রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী এক ইঞ্চি জমি বিজেপিকে ছাড়তে নারাজ। শেষ অবধি ক্ষমতায় কে আসে সেটাই দেখার।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here