শুভেন্দু-রাজীবের আঞ্চলিক প্রভাব ভোট ব্যাংকে ফেলতে চাইছে বিজেপি

0

কলকাতা: তৃণমূলের দলবদলু নেতাদের তাদের নিজের গড়েই রাখতে চাইছে পদ্ম শিবির। তাই আসন্ন নির্বাচনে নন্দীগ্রামে শুভেন্দু, ডোমজুড়ে রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় ও পাণ্ডবেশ্বরে জিতেন্দ্র তিওয়ারিই প্রার্থীই হবেন। আসলে এই তিন হেভিওয়েট নেতার অনুগামীদের আঞ্চলিক প্রভাব বিধানসভার ভোট ব্যাংকেই পেতে ইচ্ছুক রাজ্য বিজেপি। এছাড়াও তৃণমূল ত্যাগী বহু প্রভাবশালী নেতা বিজেপির টিকিটে লড়বে, সেই খবরও শোনা যাচ্ছে।

তাই ২৭ শে মার্চ নন্দীগ্রামে শুভেন্দু বনাম মমতা’র লড়াই ঘিরে উত্তপ্ত রাজ্য রাজনীতি। উল্লেখ্য, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নন্দীগ্রামে প্রার্থী হওয়ার ইচ্ছাপ্রকাশ করার দিনই শুভেন্দু তাঁর প্রাক্তন নেত্রীকে হাফ লাখে ভোটে হারানোর চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিয়েছিলেন। ঘাসফুল শিবির ছাড়ার পর রাজীব ব্যানার্জি নিজের বিধানসভাতেই দাঁড়াবেন বলেছিলেন। তার ইচ্ছাতেই শিলমোহর দিচ্ছে গেরুয়া শিবির। এদিকে রাজ্যে ভোট শুরুর কয়েক সপ্তাহ আগেই মঙ্গলবার হুগলির বৈদ্যবাটি থেকে গেরুয়া শিবিরে নাম লিখেছে পাণ্ডবেশ্বর বিধায়ক জিতেন্দ্র তিওয়ারিই। তাকে নিজের কেন্দ্রেই দাঁড় করানো হচ্ছে।

অন্যদিকে বিজেপির প্রার্থী হওয়ার লাইন লেগেছে। সেই নিয়ে রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় বিজেপির অদি নব্য দ্বন্দ্বের বিচ্ছিন্ন ঘটনাও ঘটেছে। আর তাই প্রার্থী তালিকা ঠিক করতেই রীতিমত হিমশিম খাচ্ছে রাজ্যে বিজেপি। ৬০ আসনে ৩০০ নাম বিজেপির। আজ রাতেই সেই তালিকা নিয়ে দিল্লী যাচ্ছেন রাজ্য নেতারা।