হাই ভোল্টেজ নির্বাচন: আহত পা নিয়েই ফের ২ দিনের নন্দীগ্রাম সফরে মুখ্যমন্ত্রী, রয়েছে একাধিক কর্মসূচি

0

নন্দীগ্রাম: একুশের নির্বাচনে পাখির চোখ নন্দীগ্রাম। নন্দীগ্রাম প্রচারে গিয়েই আহত হয়েছিলেন তৃনমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। চোট পেয়েছিলেন পায়ে। অসুস্থতা সত্ত্বেও ভোটের প্রচারে একটু খামতি রাখতে চাইছেন না মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। পায়ে চোট নিয়েই পুরোদমে রাজনৈতিক কর্মসূচিতে নেমে পড়েছেন তিনি। হুইল চেয়ারে বসেই জেলায়-জেলায় প্রচার সারছেন। আর সেই কারনেই এবার ফের ২দিনের সফরে নন্দীগ্রামে যাচ্ছেন তৃণমূল নেত্রী।

সূত্রের খবর, নন্দীগ্রামে কর্মীসভা, জনসভা, পথসভা সহ একাধিক কর্মসূচি রয়েছে মুখ্যমন্ত্রীর। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে আগামী ১৮ই মার্চ এগরায় কর্মসূচি করবেন তিনি। এমনটাই খবর রাজনৈতিক মহলের। পাশাপাশি, ১৯ এবং ২০ শে মার্চ নন্দীগ্রাম ও সংলগ্ন এলাকায় যাবেন। সেখানে ৭-৮টি সভা করার কথা রয়েছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। নন্দীগ্রামে গিয়ে সেখানকার নেতা-কর্মীদের সঙ্গে বৈঠক করারও কথা রয়েছে তাঁর। একাধিক কর্মসূচি করার পাশাপাশি পথসভা রয়েছে তৃণমূল নেত্রীর। একাধিক মন্দিরে যেতে পারেন বলেও সূত্রের খবর।

উল্লেখ্য, গত ১০ মার্চ বুধবার নন্দীগ্রামে নিজের গাড়িতে চেপেই জনসংযোগ করছিলেন তৃণমূল সুপ্রিমো। গাড়ির দরজা পায়ে চেপে যাওয়ায় আঘাত পান তিনি। তড়িঘড়ি ওই রাতেই তাঁকে আনা হয় কলকাতার এসএসকেএম হাসপাতালে। পায়ের হাড় না ভাঙলেও পেশিতে চোট লাগে তৃণমূলনেত্রীর। ১২ মার্চ হুইল চেয়ারে চড়ে বাড়ি ফেরেন তৃণমূলনেত্রী। এরপর গত রবিবার থেকেই পুরোদমে হুইল চেয়ারে বসেই রাজনৈতিক কর্মসূচি শুরু করে দিয়েছেন তিনি। সোমবার পুরুলিয়ার ঝালদা ও বলরামপুরে দুটি নির্বাচনী জনসভা করেন তৃণমূলনেত্রী। দুটি সভাতেই তুলোধনা করেন কেন্দ্রের শাসকদল বিজেপিকে।