আউসগ্রাম দুই আদিবাসী কিশোরীকে গণধর্ষণ, গ্রেফতার পাঁচ

0

পূর্ব বর্ধমান: দুই আদিবাসী কিশোরীকে গণধর্ষণ পূর্ব বর্ধমানের আউশগ্রামে। ঘটনার পর ৫ জন অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গত রবিবার পূর্ব বর্ধমানের আউশগ্রামে এই ঘটনা ঘটেছে। জানা গিয়েছে যে, দুই আদিবাসী কিশোরী বাড়ির পাশের একটি জঙ্গিলে খেলছিল। সেই সময় এলাকার পাঁচ যুবক তাঁদের তুলে নিয়ে গিয়ে গণধর্ষণ করে।

রবিবার বিকেলের এই ঘটনার পরে, আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলি। পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, নির্যাতিতা ও অভিযুক্তদের বাড়ি আউশগ্রামে। রবিবার বিকেলে গ্রাম লাগোয়া বন দপ্তরের বাগানে কয়েকজন কিশোরী অন্য দিনের মতোই বেড়াতে যায়। পুলিশের দাবি, নবম শ্রেণীর ওই দুই ছাত্রী তাদের জানিয়েছে, সন্ধ্যার মুখে গাছের গুঁড়িতে বসে গল্প করছিল তারা। সেই সময়ে এলাকার ওই পাঁচ জন যাদের তারা ‘কাকা-দাদা’ বলে ডাকে সেখানে আসে। বাড়ি পৌঁছে দেওয়ার কথা বলায় বিশ্বাস করে মেয়েরা তাদের সাইকেলে ওঠে। কিছুটা যাওয়ার পরই তাদের নামিয়ে টেনেহিঁচড়ে একটি নির্জন পুকুর পাড়ে নিয়ে গিয়ে নির্যাতন করা হয়।

নির্যাতিতা কিশোরীরা বাড়িতে গিয়ে সব কথা জানায়। এরপর নির্যাতিতার পরিবার পুলিশে অভিযোগ দায়ের করে। পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে মানকড় থেকে ওই পাঁচ যুবককে গ্রেফতার করা হয়। নির্যাতিতা কিশোরীদের প্রথমে নবগ্রাম ব্লক হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল। এরপর সেখান থেকে বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গিয়ে ভরতি করানো হয়। অভিযুক্তদের কঠোর শাস্তির দাবিতে সরব হয়েছে নির্যাতিতার পরিবার এবং এলাকাবাসী।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here