বুথ পরিদর্শনে গিয়ে বিক্ষোভের মুখে বিজেপি প্রার্থী তনুশ্রী

0

উলুবেড়িয়া: ভোটের আবহেই বিজেপিতে যোগ দেন তনুশ্রী চক্রবর্তী। একুশের নির্বাচনে হাওড়ার শ্যামপুর কেন্দ্রে তৃণমূল প্রার্থী কালীপদ মণ্ডলের বিপরীতে প্রার্থী করা হয় তাঁকে। প্রার্থী হওয়ার পর প্রচারে কোনও খামতি রাখেনি অভিনেত্রী। অভিনেত্রীর হয়ে জনসংযোগ করেছেন ‘মহাগুরু’ মিঠুন চক্রবর্তী। নিজেও শ্যামপুরের দুয়ারে দুয়ারে গিয়ে প্রচার করেছেন। মঙ্গলবার ভোটের দিনও গোটা এলাকা চষে বেড়ান তারকা প্রার্থী। বুথ পরিদর্শনে বেরিয়ে বিক্ষোভের মুখে পড়লেন বিজেপি প্রার্থী তনুশ্রী চক্রবর্তী।

মঙ্গলবার সকাল সাড়ে আটটা নাগাদ নিজের হোটেল থেকে বেড়িয়েহাওড়ার শ্যামপুরের বিভিন্ন কেন্দ্রে ঘুরে বেড়াচ্ছিলেন বিজেপির তারকা প্রার্থী তনুশ্রী। তখনই অভিনেত্রীর কাছে খবর আসে, পাছরি গ্রাম পঞ্চায়েতের জোকা কুমারগড় এলাকায় ভোটারদের ভয় দেখানো হচ্ছে। তাঁদের বুথে গিয়ে ভোট দিতে বারণ করা হয়েছে। ভয়ে কেউ বাড়ি থেকে বের হতে পারছেন না। খবর পেয়েই বেলা সাড়ে এগারোটা নাগাদ ঘটনাস্থলে পৌঁছান তনুশ্রী। অভিযোগ, সেখানেই কিছু তৃণমূল সমর্থক তাঁকে ঘিরে ধরেন। আর কুমারগড় এলাকায় কোনও ভোটারকে ভয় দেখানো হচ্ছে না বলে দাবি করেন। তারকা প্রার্থীর বিরুদ্ধে ক্ষোভ করেন বলেও শোনা গিয়েছে। তবে পরিস্থিতি জটিল হওয়ার আগেই উপস্থিত পুলিশকর্মীরা তনুশ্রীকে সেখান থেকে নিয়ে যান বলে খবর।

সূত্রের খবর, গোটা বিষয়টি নিয়ে বেশ ক্ষুব্ধ বিজেপির তারকা প্রার্থী। তিনি নির্বাচন কমিশনকে বিষয়টি জানাবেন বলেও ঠিক করেছেন। এদিকে শ্যামপুরেরই আরেকটি কেন্দ্রে ভোটে অনিয়মের অভিযোগ করেন তনুশ্রী। সেখানে শাশুড়ির হয়ে বউমার ভোট দেওয়ার বিরোধিতা করেন। এ নিয়ে ভোটের এজেন্টদের সঙ্গে বাকবিতণ্ডাতেও জড়ান। এজেন্টদের দাবি ছিল, শাশুড়ি চোখে দেখতে পান না বলে বউমা তাঁর হয়ে ভোট দিয়েছিলেন। তনুশ্রীর দাবি, শাশুড়ি অল্প চোখে দেখতে পান। বিষয়টি দুঃখজনক বলে আক্ষেপ প্রকাশ করেন অভিনেত্রী।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here