করোনা আতঙ্কে ফের অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ হচ্ছে বেলুড় মঠের দ্বার

0

কলকাতাঃ দেশ জুড়ে আছড়ে পড়েছে করোনার সেকেন্ড ওয়েভে। বাংলাতেও হু হু করে ছড়াচ্ছে সংক্রমণ। প্রতিদিন হাজার-হাজার মানুষ নতুন করে করোনা আক্রান্ত হচ্ছেন। পাল্লা দিয়ে বাড়ছে মৃত্যু সংখ্যা। এই পরিস্থিতিতে ফের অনির্দিষ্টকালের জন্য বেলুড়মঠ বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিল কর্তৃপক্ষ। জানা গিয়েছে, বৃহস্পতিবার থেকে আপাতত ভক্তরা প্রবেশ করতে পারবেন না বেলুড়ে।

প্রায় ১১ মাস বন্ধ থাকার পর চলতি বছর ১০ ফেব্রুয়ারি মাস থেকে ভক্তরা বেলুড় মঠে প্রবেশের অনুমতি পান। তবে সময় বেঁধে দেওয়া হয়েছিল সকাল সাড়ে আটটা থেকে বেলা এগারোটা ও দুপুর সাড়ে তিনটে থেকে বিকেল পাঁচটা। কোভিড প্রোটোকল মেনেই চলছিল সব কিছু। প্রসাদ বিতরণ, আরতি দর্শন, ধ্যান এসব বন্ধ ছিল। দু’মাস যেতে না যেতেই ফের থাবা বসিয়েছে মারণ ভাইরাস। আর এই কারণেই ফের বন্ধ হয়ে যাচ্ছে বেলুড়মঠ। আবার কবে খুলবে বেলুড় মঠের দরজা, সেই অপেক্ষায় ভক্তেরা।

প্রসঙ্গত, ২০২০ সালের মার্চে প্রথম মারণ ভাইরাস থাবা বসিয়েছিল রাজ্যে। ভাইরাসের দাপট থেকে বাঁচতে জারি হয়েছিল লকডাউন। স্তব্ধ হয়ে গিয়েছিল জনজীবন। গণপরিবহণ থেকে ধর্মস্থান, সবকিছুই বন্ধ রাখা হয়েছিল। সেই সময় প্রথমে প্রায় আড়াই মাস বন্ধ ছিল বেলুড় মঠও। আনলক পর্যায়ে একে একে খুলতে শুরু করে সব ধর্মস্থান। কোভিড বিধি মেনে দর্শনার্থীদের প্রবেশের সিদ্ধান্ত নেয় সমস্ত মন্দির কমিটি। একাধিক মন্দিরে বসানো হয় স্যানিটাইজার টানেল। বেঁধে দেওয়া হয় ভক্তদের প্রবেশের সংখ্যা। সেই সময় বেলুড় মঠের দরজা সাধারণ মানুষের জন্য খুলে দেওয়া হলেও ভিড় সামলাতে হিমশিম খেতে হয় মন্দির কর্তৃপক্ষের। সেই কারণে করোনা পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে ফের বন্ধ করে দেওয়া হয় বেলুড়। দুর্গাপুজোর সময়ও মঠে প্রবেশের অনুমতি পায়নি আমজনতা। তারপরও বেশ কয়েকমাস পর গত ফেব্রুয়ারিতে ভক্তদের জন্য খুলে দেওয়া হয়েছিল বেলুড় মঠের দ্বার।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here