জলাভূমি ভরাট করে বেআইনিভাবে পাট্টা দেওয়ার অভিযোগ করলেন ভাইস চেয়ারম্যান

0

নিজস্ব প্রতিনিধি, মালদহ: জলাভূমি ভরাট করে বেআইনিভাবে পাট্টা দেওয়ার নামে টাকা তোলার অভিযোগ আনলেন ইংরেজবাজার পুরসভার ভাইস চেয়ারম্যান। গত ২৮ আগস্টের পর থেকে ইংরেজবাজার পুরসভার অচলাবস্থা এখনও কাটেনি।

রাজ্য নেতৃত্ব তৃণমূল পরিচালিত ইংরেজবাজার পুরসভার কাউন্সিলারদের সঙ্গে আলোচনা করে সমস্যা মিটিয়ে নিতে বলেছিলেন। কিন্তু সেই সমস্যা তো মেটেনি বরং সমস্যা আরও বাড়ছে। শুক্রবার ইংরেজবাজার পুরসভার উপপুরপ্রধান দুলাল সরকার গুরুতর অভিযোগ আনলেন চেয়ারম্যান নীহার রঞ্জন ঘোষের বিরুদ্ধে।

ইংরেজবাজার পুরসভার তিন নম্বর ওয়ার্ডে পুকুর ভরাট করে সেই জমির প্লট করা হচ্ছে। ওই ওয়ার্ডের কাউন্সিলর পরিতোষ চৌধুরী মানুষের কাছে টাকার বিনিময় পাট্টা দেওয়া হবে বলে টাকা তুলছেন। ইংরেজবাজার পুরসভার চেয়ারম্যান নিহার রঞ্জন ঘোষ বেআইনিভাবে একটি নির্দেশ জারি করেছেন। যেন এখানে পাট্টা দেওয়া হয়। সেই কারণে উপ পুরপ্রধান এই নির্দেশকে অবৈধ বলে বাতিল করে দেন।

ভাইস চেয়ারম্যান দুলাল সরকার বলেন, কোনোরকম বোর্ড মিটিংএ আলোচনা ছাড়াই চেয়ারম্যান এই নির্দেশ জারি করেছেন। মুখ্যমন্ত্রী যেখানে বলছেন জলাভূমি ভরাট করা যাবে না। সেখানে কিভাবে ওই কাউন্সিলার পুকুর ভরাট করে টাকা তুলছেন। আমরা রাজ্য নেতৃত্ব সহ পুরমন্ত্রীকে এই বেনিয়মের কথা লিখিত ভাবে জানিয়েছি। যেখানে পুরসভা নিজস্ব জঞ্জাল ফেলার জায়গা নেই, জল নিকাশি ব্যবস্থা নেই সেখানে এইভাবে জলাভূমি বেআইনি ভাবে ভরাট করা অপরাধ।

তিনি আরও বলেন, গ্রীণসিটির জন্য মুখ্যমন্ত্রী লক্ষ লক্ষ টাকা দিচ্ছেন জায়গার অভাবে সেই টাকা কাজে লাগানো যাচ্ছে না। আমরা চাই ওই জায়গাতে ব্যক্তিগত ভাবে কাউকে জমি না দিয়ে বহুতল নির্মাণ করে গৃহহীনদের ঘর দিলে সেটা অনেক কাজে লাগবে। মুখ্যমন্ত্রী বার বার বলছেন গৃহহীনদের ঘর দিতে। টাকা পুরসভাতে এসে পরেও আছে। কোন বোর্ড মিটিং না হওয়াতে সেই টাকা কাজে লাগাতে পারছি না। কোন বোর্ড মিটিং ছাড়া কিভাবে এই বেআইনি কাজ হচ্ছে আমরা কিছুই জানি না। তাই আমি ওই নির্দেশ খারিজ করেছি।