ভারতে রাফেলের আগমনকে নিয়ে চীনের পর এবার ‘ক্ষোভপ্রকাশ’ পাকিস্তানের

0

ইসলামাবাদ : ফ্রান্স থেকে রাফেল আসার পরে একদিকে ভারতীয় বায়ুসেনার শক্তি বহুগুণ বেড়েছে, অন্যদিকে প্রতিবেশী দেশ চীন ও পাকিস্তান এর দ্বারা ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। প্রথমে চীন রাফেল বিমানকে তার জে-২০ এর চেয়ে কম ক্ষমতাসম্পন্ন বলে, এখন পাকিস্তান এটিকে পারমাণবিক অস্ত্রের রেস হিসাবে ঘোষণা করেছে।

পাকিস্তানের বিদেশ মন্ত্রকের মুখপাত্র আয়েশা ফারুকি ভারতের রাফেল যুদ্ধবিমান পাওয়ার বিষয়ে প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন। সাপ্তাহিক সংবাদমাধ্যম ব্রিফিংয়ে ফারুকি বলেন, তিনি সম্প্রতি রাফেল বিমান সম্পর্কিত অনেক রিপোর্ট দেখেছেন যা ভারতীয় বায়ুসেনা সম্প্রতি পেয়েছে। তিনি বলেন, ভারতের প্রাক্তন আধিকারিক এবং অনেক আন্তর্জাতিক ম্যাগাজিনের মতে রাফেল বিমানটি দ্বৈত ক্ষমতাসম্পন্ন এবং পারমাণবিক অস্ত্রের জন্যও ব্যবহার করা যেতে পারে।

ফারুকি বলেন, ভারত ক্রমাগত তার পারমাণবিক অস্ত্রের মজুদ বাড়িয়ে তুলছে এবং আধুনিকায়ন করছে। পাকিস্তানের বিদেশ মন্ত্রকের মুখপাত্র বলেন, ভারত, ভারত মহাসাগরকে পারমাণবিক অস্ত্র হিসাবে পরিণত করছে এবং মিসাইল সিস্টেমের মাধ্যমে অবিরাম অস্ত্র মোতায়েন বাড়িয়ে তুলছে। তিনি বলেন যে, নিজের প্রয়োজনীয় সুরক্ষার পাশাপাশি ভারত এশিয়াতে নিয়মিতভাবে তার সামরিক সামর্থ্য বাড়াচ্ছে। পাশ্চাত্য তার সংকীর্ণ ব্যবসার স্বার্থে এই অস্ত্র ও প্রযুক্তি সরবরাহে ভারতকে সাহায্য করছে।

বলা বাহুল্য, ভারতীয় বিমানবাহিনীতে পাঁচটি রাফালে বিমান অন্তর্ভুক্ত করার পরে, প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিং বলেছিলেন যে এটি ভারতীয় সেনাবাহিনীর জন্য নতুন যুগের সূচনা। চীন রাফেলের বিষয়ে প্রতিক্রিয়া জানিয়ে বলেছিল যে রাফেল জে-২০ এর সামনে তুচ্ছ!

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here