লাদাখ সীমান্তের কাছে যুদ্ধাভ্যাস শুরু করল চীন, ১০০টি গাড়ি করে এল ১০০০ সেনা

0

বেজিং : পূর্ব লাদাখের উত্তেজনাপূর্ণ পরিস্থিতি থেকে চীন নিজেদের না আটকে, এখন ভারতের সীমান্তে মহড়া দিচ্ছে। চীন এমন এক সময় এই পদক্ষেপ নিয়েছে যখন ভারতীয় সেনারা ড্রাগনকে জোরদার ঝটকা দিয়ে প্যাংগং হ্রদের দক্ষিণ তীরের উঁচু চূড়াটি কবজা করে নিয়েছিল। চীনের সরকারী টিভি চ্যানেল সিজিটিএন-এর খবরে বলা হয়েছে, উত্তর-পশ্চিম চীনে এই লাইভ ফায়ার ড্রিলটিতে এক হাজার সেনা অংশ নিচ্ছে।

এই সেনারা ১০০ টি গাড়ি করে এসেছে। তাদেরকে চীনের রেললাইন দিয়ে লাদাখ সীমান্তের কাছে পৌঁছানো হয়েছে। চীন এই লাইভ ফায়ার ড্রিলটিতে কামান, ট্যাঙ্ক এবং ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবহার করছে। সিজিটিএন নিউজ প্রযোজক শেন শি ওয়েই এই ভিডিওটি টুইট করে লিখেছেন, “দয়া করে অপেক্ষা করুন এবং দেখুন। চীন এমন এক সময় এই মহড়া পরিচালনা করছে যখন প্যাংগং এলাকায় ভারতীয় সেনাবাহিনী তাদেরকে একটি মারাত্মক ঝটকা দিয়েছে।”

প্রসঙ্গত, চীন আবারও ভারতের সাথে আলোচনার নামে লাদাখের প্যাংগং লেক অঞ্চলে ঝাঁপিয়ে পড়ার চেষ্টা করেছে। প্যাংগং হ্রদের দক্ষিণ তীরে রাতের বেলা বিপুল সংখ্যক চীনা সেনা স্থিতাবস্থা পরিবর্তন করার চেষ্টা করেছিল। ড্রাগনের এই ঘৃণ্য ষড়যন্ত্রকে কঠোর পদক্ষেপে ভারতীয় সেনাবাহিনী ব্যর্থ করেছিল।

শুধু তাই নয়, ভারতীয় সেনাবাহিনী তৎক্ষণাৎ এই এলাকায় আরও সেনা মোতায়েন করে। ভারত লাগাতার জোর দিয়ে আসছে যে LaC প্যাংগং হ্রদের ফিঙ্গার-৮ অবধি যায় এবং ফিঙ্গার ৪ ও ৫-এ চীনা সেনা মোতায়েন সম্পূর্ণ গ্রহণযোগ্য নয়। ভারতের প্রতিরক্ষা মন্ত্রক বলেছে, “৩১ আগস্ট উভয়পক্ষের গ্রাউন্ড কমান্ডার পরিস্থিতি উন্নতির জন্য যখন আলোচনা করছিল তখন চীনা সেনারা আবার উস্কানিমূলক পদক্ষেপে লিপ্ত হয়েছিল”। মন্ত্রক জানিয়েছে, “সঠিক সময়ে প্রতিরক্ষামূলক পদক্ষেপের কারণে ভারতীয় পক্ষ এই প্রচেষ্টা বন্ধ করে দিয়েছে এবং স্থিতাবস্থা পরিবর্তন করতে দেয়নি।”

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here